Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

ক্লপ-গার্দিওলার ‘শেষ’ লড়াইয়ে বিতর্ক আর রোমাঞ্চ

ক্লপের চোখে এটা ফাউল ছিল। পেনাল্টি না পাওয়ায় হতাশা লুকাননি তিনি। ছবি : এক্স
ক্লপের চোখে এটা ফাউল ছিল। পেনাল্টি না পাওয়ায় হতাশা লুকাননি তিনি। ছবি : এক্স

তাহলে কি ‘ডাকাতির’ শিকার লিভারপুল? সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে সেই আলোচনা। ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে তখন খেলা চলছে স্টপেজ টাইমের। ম্যানসিটির জেরেমি ডোকুর পা ডি বক্সে লাগল লিভারপুলের ম্যাক অ্যালিস্টারের বুকে।

রেফারি মাইকেল অলিভার এড়িয়ে গেলেন। ভিএআরও একমত তার সঙ্গে। পেনাল্টি পেল না লিভারপুল। এ নিয়ে রেফারিকে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ করছেন লিভারপুল সমর্থকরা। উত্তেজনা আর রোমাঞ্চকর ম্যাচটি শেষ হয় ১-১ সমতায়।

মৌসুম শেষে লিভারপুল ছাড়ছেন ইয়ুর্গেন ক্লপ। পেপ গার্দিওলার সঙ্গে তার যে দীর্ঘ লড়াই, শেষ হতে চলেছে সেটারও। আজ (রবিবার) দুজনের দল লিভারপুল ও ম্যানচেস্টার সিটি শেষবার মুখোমুখি হল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে। সেই লড়াইয়ে জিতল না কোন দল।

২৩ মিনিটে জন স্টোনসের গোলে এগিয়ে যায় ম্যানসিটি। কর্নার থেকে দারুণ অ্যাসিস্ট করেছিলেন কেভিন ডি ব্রুইনা। ৫০ মিনিটে ম্যাক অ্যালিস্টারের পেনাল্টিতে সমতা ফেরায় লিভারপুল। ডিবক্সে দারউন নুনেসকে গোলরক্ষক এদেরসন ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। এফএ কাপে দেখা না হলে আজই শেষবার মুখোমুখি হয়ে গেলেন ক্লপ ও গার্দিওলা।

বিতর্ক উস্কে দিলেন ক্লপ

সমর্থকদের সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন ক্লপও। জেরেমি ডোকুর ‘ফাউল’-এর পর পেনাল্টি না দেওয়াটা মানতে পারছে না লিভারপুল কোচ,‘‘এই পৃথিবীর সব ফুটবল বোঝা মানুষের কাছে এটা পেনাল্টি। মাঠের যে কোন পজিশনে এটা ফাউল আর হলুদ কার্ড। ভিএআর কক্ষে থাকা মানুষটার কেন মনে হলো পেনাল্টিটা সুস্পষ্ট ও নিশ্চিত ছিল না? লাঞ্চে কী খেয়েছিল সে?’’

বল দখলে এগিয়ে লিভারপুল

পেপ গার্দিওলার দল বলের দখল রেখে খেলেই অভ্যস্ত। অ্যানফিল্ডে সেটা হতে দেননি ক্লপ। লিভারপুলের বলের দখল ছিল ৫৩ শতাংশ।

সেখানে ম্যানসিটির ৪৭ শতাংশ। এমনকি গোলপোস্টে লিভারপুলের শট যেখানে ১৯টি, সেখানে ম্যানসিটির ১০টি। তবে লক্ষ্যে ছিল দুই দলের সমান ৬টি করে শট।

ম্যানসিটির হতাশা

লিভারপুল দাপটেই খেলেছে ম্যাচ। তবে ম্যাচটা জিততে পরত ম্যানচেস্টার সিটিও। খেলার শেষ দিকে ফিল ফোডেনের শট ফিরে বারে লেগে। আর জেরেমি ডোকুর শট বাঁধা পায় পোাস্টে।

ডি ব্রুইনার ক্ষোভ

কেভিন ডি ব্রুইনার অ্যাসিস্টে এগিয়ে গিয়েছিল ম্যানসিটি। সেই ডি ব্রুইনাকেই ৬৯ মিনিটে তুলে নেন গার্দিওলা। বদলি হিসেবে নামান ইউলিয়ান আলভারেজকে। এটাই মানতে পারছিলেন না ডি ব্রুইনা। টাচলাইনে তিনি তর্ক করেন গার্দিওলার সঙ্গে। এমনকি বেঞ্চে বসে থাকা কোচিং স্টাফদের সঙ্গেও মেজাজ দেখান তিনি।

লিভারপুলের রেকর্ড

লিভারপুলের একাদশের গড় বয়স ছিল ২৫ বছর ১৩৩ দিন। গত ৬ বছরের মধ্যে লিগে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে এটাই সবচেয়ে কম বয়সী দল অলরেডদের। চোটের জন্য একাদশে না থাকা মো সালাহ নামেন ৬০ মিনিটে। তবে পার্থক্য গড়তে পারেননি তিনিও।

লাভ আর্সেনালের

এই ড্রতে শীর্ষে এখন আর্সেনাল। সমান ২৮ ম্যাচ শেষে আর্সেনালের পয়েন্ট ৬৪, লিভারপুলের ৬৪ আর ম্যানসিটির ৬৩। তবে গোল গড়ে এক নম্বর জায়গাটা আর্সেনালের।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist