Beta
শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪

দেশবাসী পক্ষে, সরকার পতন অসম্ভব : প্রধানমন্ত্রী

শেখ হাসিনা
তেঁজগাও কার্যালয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী। ছবি : পিআইডি

দেশবাসী আওয়ামী লীগ সরকারের পক্ষে রয়েছে বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তাই সরকারের পতন কেউ ঘটাতে পারবে, এমন আশঙ্কা করছেন না তিনি।

তিনি বলেন, “তারা (বিএনপি-জামায়াত) আওয়ামী লীগকে ক্ষমতাচ্যুত করার স্বপ্ন দেখছে। তারা কীভাবে ভুলে যায় যে, আওয়ামী লীগ সবসময় জনগণের পাশে থাকে। যার জন্য জনগণ তাদের বারবার ভোট দেয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে এদেশের গরিবের পেটে ভাত থাকে, মাথা গোজার ঠাঁই হয়।”

সোমবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৪ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২৪ উদযাপন উপলক্ষ্যে দলের তেঁজগাও কার্যালয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় সবাইকে দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়াতে, ইফতার বিতরণ করে সহযোগিতা করতে আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, “বিএনপি রমজান মাসে গরিব মানুষের মধ্যে ইফতার বিতরণ না করে সরকারের সমালোচনা করে। নিজেরা ইফতার খায়, আর আওয়ামী লীগের গীবত গায়। আর কবে আওয়ামী লীগকে উৎখাত করবে সেটাই দেখে।”

সংযমের এই মাসে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাবে মূল্যস্ফীতির মধ্যে দেশের সাধারণ মানুষের পাশে না দাঁড়ানোয় বিএনপির সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

তিনি বলেন, “তারা ইফতার পার্টি করে করুক, কিন্তু আপনারা দেখাবেন যে কে মানুষের পাশে আছে। আর এই কারণেই তো মানুষ আমাদের ভোট দেয়। বাংলাদেশের মানুষ যে বারবার আমাদেরকে ভোট দেয় সেটাতো এই কারণেই।

“ আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠন এবং এর নির্বাচিত প্রতিনিধিরা ইফতার পার্টি না করে সারাদেশে গরিবদের মাঝে ইফতার বিতরণ করছে। দেশবাসী ও আওয়ামী লীগকে বার বার সমর্থন করেছে। কারণ তারা তাদের প্রয়োজনে আওয়ামী লীগকে সবসময় পাশে পেয়েছে।”

এসময় বিএনপি’র তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবির প্রসঙ্গেও কথা বলেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, “এখন এই দাবির পেছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য রয়েছে।”

সাধারণ মানুষ, গরীব মানুষ ভালো থাকলে সেটা বিএনপির পছন্দ হয় না অভিযোগ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “কাজেই তারা যে চায় সেটা ইলেকশনের জন্য নয়, বাংলাদেশকে আবার অন্ধকার যুগে ঠেলে দেওয়ার জন্য।

“কিন্তু এই দেশকে আর কখনো অন্ধকার যুগে ফেলে দিতে পারবে না। কারণ, এটা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের দেশ। মুজিব জন্মগ্রহণ করেছেন এই দেশের দুঃখী মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য। আর তার আদর্শ ধারণ করেই আমরা সেটা করে যাব।”

আলোচনায় আরও অংশ নেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, দলের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, মোশাররফ হোসেন, কামরুল ইসলাম ও মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ, দীপু মনি ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য মেরিনা জাহান কবিতা।

দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ এবং দলের উপ-প্রচার সম্পাদক সৈয়দ আব্দুল আওয়াল শামীম আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist