Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪
Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪

অবৈধ সম্পদ : সাবেক এনবিআর কর্মকর্তা ও স্বামীর নামে মামলা

SS-DUDOK-ACC-Anti-Corruption-Commission-020424
Picture of প্রতিবেদক, সকাল সন্ধ্যা

প্রতিবেদক, সকাল সন্ধ্যা

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অবসরপ্রাপ্ত (এনবিআর) সহকারী পরিচালক বদরুন নাহার ও তার স্বামীর নামে আলাদা দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

বদরুন নাহারের স্বামী কবির আহমেদ সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের সাবেক অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী।

সোমবার দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ কমিশনের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জিন্নাতুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দুটি করেন। বৃহস্পতিবার বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন দুদকের উপপরিচালক আকতারুল ইসলাম। 

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, রাজস্ব কর্মকর্তা বদরুন নাহার দুদকের কাছে দেওয়া সম্পদ বিবরণীতে ৮ কোটি ৬০ লাখ ৮৯ হাজার ৯৫২ টাকার সম্পদের কথা ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু দুদকের অনুসন্ধানে তার নামে স্থাবর ও অস্থাবর মিলিয়ে ৯ কোটি ৯১ লাখ ৮৭ হাজার ৬১৫ টাকা মূল্যের সম্পদ অর্জনের তথ্য পাওয়া যায়।

এর বিপরীতে তার গ্রহণযোগ্য আয় পাওয়া যায় ২ কোটি ৩৯ লাখ ৭২ হাজার টাকা। 

এছাড়া ২০১৪-২০১৫ করবর্ষ থেকে ২০২১-২০২২ করবর্ষে পারিবারিক ব্যয়সহ তার দায় দেনা পাওয়া যায় ২ কোটি ২১ লাখ ১৬ হাজার ৫৮৫ টাকা।

সেই হিসাবে তিনি মোট অর্জিত সম্পদের চেয়ে ৫ কোটি ৭৬ লাখ ৫৯ হাজার ৮৩৬ টাকা মূল্যের অতিরিক্ত বা জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন বলে মনে করছে দুদক।

এজাহার থেকে আরও জানা যায়, রাজস্বের এই সাবেক কর্মকর্তা ঢাকার বনশ্রীর এফ ব্লকে সাড়ে তিন কাঠা জমির উপর নিজের নামে একটি ছয়তলা বাড়ি তৈরি করেন। দুদকের কাছে যার নির্মাণ ব্যয় দেখান ৮০ লাখ ৯৫ হাজার টাকা। 

তবে দুদকের অনুসন্ধান করে একজন নিরপেক্ষ প্রকৌশলীর মাধ্যমে পরিমাপ করিয়ে দেখতে পেয়েছে বাড়িটির নির্মাণ ব্যয় অন্তত ২ কোটি ১১ লাখ ৯৩ হাজার টাকা। অর্থাৎ বদরুন নাহার, বাড়ি নির্মাণে এক কোটি ৩০ লাখ ৯৭ হাজার ৬৬৩ টাকা মূল্যের সম্পদের মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য দিয়েছিলেন।

একইসঙ্গে দুদকে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে নিজের আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ ৫ কোটি ৭৬ লাখ ৫৯ হাজার ৮৩৬ টাকা মূল্যের সম্পদ অর্জনের প্রমাণও মিলেছে।

অন্য একটি মামলায় আসামি করা হয়েছে বদরুন নাহারের স্বামী সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) সাবেক অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী কবির আহমেদকে। তার বিরুদ্ধে ১ কোটি ৮ লাখ ৯০ হাজার ৭২৮ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও ভোগ দখলে রাখার অভিযোগ আনা হয়। 

এই মামলার এজাহার অনুযায়ী, কবির আহমেদ তার সম্পদ বিবরণীতে ২ কোটি ৭৯ লাখ ৯৬ হাজার ৮৫১ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য ঘোষণা করেন। তবে ২০১৪-১৫ করবর্ষ থেকে ২০২১-২০২২ করবর্ষ পর্যন্ত পারিবারিক ও অন্যান্য ব্যয় গ্রহণযোগ্য আয় পাওয়া যায় ১ কোটি ৯১ লাখ ৭৫ টাকার।

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও সম্পদের মিথ্যা তথ্য প্রদর্শনের দায়ে বদরুন নাহারে নামে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৬ এর ২ ও ২৭ এর ১ ধারায়, তার স্বামীর বিরুদ্ধে ২৭ এর ১ ধারায় অভিযোগ এনে এসব মামলা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত