Beta
রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪

বিএসএমএমইউয়ে সভা সমাবেশ মিছিল নিষিদ্ধ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।

বর্তমান উপাচার্যের অনুগতদের মারধরসহ অস্থিতিশীল পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) সব ধরনের সভা, সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ডা. হাবিবুর রহমান দুলাল স্বাক্ষরিত এক নোটিসে এ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

নোটিসে সভা, সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ ঘোষণার পাশাপাশি পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ ঘোষণা বহাল থাকবে বলেও উল্লেখ করা হয়।

নতুন উপাচার্য দায়িত্ব নেওয়ার আগে বিএসএমএমইউয়ে শনিবার উত্তেজনা চরমে ওঠে; মারধরের শিকার হন বিদায়ী উপাচার্য অধ্যাপক শারফুদ্দিন আহমেদের অনুগতরা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক দীন মো. নূরুল হক বিএসএমএমইউর নতুন উপাচার্য হিসাবে নিয়োগ পাওয়ার পর থেকে অধ্যাপক শারফুদ্দিনের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলে সরব হন একদল চিকিৎসক-কর্মচারী। ফলে উত্তেজনা চলতে থাকে দেশের চিকিৎসা শিক্ষার সর্বোচ্চ এই প্রতিষ্ঠানে।

বিদায়ী উপাচার্যের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ তুলে শনিবার তার দপ্তরের সামনে অবস্থান নেয় সরকার সমর্থক চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) চিকিৎসকরা। তাদের সঙ্গে যোগ দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের নার্স, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

সেখানেই মারধরের শিকার হন উপাচার্যের ব্যক্তিগত সহকারী সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ রাসেল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ডা. রাসেলকে চড়-থাপ্পড় দিয়ে উপাচার্যের কক্ষ থেকে বের করে দেওয়া হয়। এছাড়া বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল থেকে মারধর করে বের করে দেওয়া হয় ডা. রসুল আমিন শিপনকে। মারধরের শিকার হন বিদায়ী উপাচার্যের অনুগত হিসেবে পরিচিত ফারুক মুন্সীসহ মোট চার চিকিৎসক।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist