Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

আশরাফুলের জোড়া গোলে আবাহনীর জয়

আবাহনীর ফরোয়ার্ড পুস্কর খীসাকে সামলাতে ব্যস্ত সাধারণ বীমার ডিফেন্ডাররা। শনিবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে। ছবি: সংগৃহীত।
আবাহনীর ফরোয়ার্ড পুস্কর খীসাকে সামলাতে ব্যস্ত সাধারণ বীমার ডিফেন্ডাররা। শনিবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে। ছবি: সংগৃহীত।

প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে জয় পেয়েছে আবাহনী লিমিটেড। শনিবার  মওলানা ভাসানী জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের শেষ ম্যাচে সাধারণ বীমা কর্পোরেশন ক্লাবকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে আকাশী-নীলরা। আবাহনীর হয়ে জোড়া গোল করেছে আশরাফুল ইসলাম। অপর গোলটি করেন পুষ্কর খীসা মিমো।

খেলার প্রথম কোয়ার্টার ছিল গোলশূন্য। দ্বিতীয় কোয়ার্টারের ২৩ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন আবাহনীর ফরোয়ার্ড পুস্কর খীসা মিমো (১-০)। দ্বিতীয় কোয়ার্টারের ২৯ মিনিটে আশরাফুল ইসলাম পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন (২-০)। খেলার তৃতীয় কোয়ার্টারেও বেশ কয়েকটা পেনাল্টি কর্নার পেলেও সেগুলো গোলে পরিণত করতে পারেনি আবাহনী। সাধারণ বীমাও পেনাল্টি কর্নার কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়েছে। খেলার চতুর্থ ও শেষ কোয়ার্টারের ৫৪ মিনিটে ম্যাচের তৃতীয় ও শেষ গোলটি করেন আশরাফুল ইসলাম (৩-০)। এটিও পেনাল্টি কর্নার থেকে এসেছে।

সাধারণ বীমার বিপক্ষে আক্রমণে আবাহনীর খেলোয়াড়। ছবি: সংগৃহীত।

মেরিনার ইয়াংসে বিধ্বস্ত ভিক্টোরিয়া

প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে স্টিকের জাদু দেখিয়েই চলেছেন ঢাকা মেরিনার ইয়াংস ক্লাবের ডিফেন্ডার সোহানুর রহমান সবুজ। ৪ ম্যাচ শেষে সবুজের নামের পাশে রয়েছে ১৭ গোল।

শনিবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম খেলায় মেরিনার্স ১১-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবকে। এই ম্যাচে সবুজ একাই করেছেন ৭ গোল। লিগে ৪ ম্যাচে তৃতীয় জয় মেরিনার্সের।

ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই দারুণ এক ফিল্ড গোল করে মেরিনার্সকে শুরুতেই এগিয়ে নেন সবুজ (১-০)। খেলার সপ্তম মিনিটে সমতায় ফেরে ভিক্টোরিয়া। সোহানুর রহমান পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে ভিক্টোরিয়াকে ১-১ গোলে সমতায় ফেরান।

মেরিনার্স বিধ্বস্ত করেছে ভিক্টোরিয়াকে। ছবি: সংগৃহীত।

দ্বিতীয় কোয়ার্টারের ১৯ মিনিটে বেলাল হোসেনের পেনাল্টি কর্নার থেকে পাওয়া গোলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় মেরিনার্স। ২০ মিনিটে সাদাফ সালেকীনের ফিল্ড গোলে ব্যবধান বাড়িয়ে ৩-১ এ নিয়ে যায় দলটি। খেলার ২২ মিনিটে সবুজের পেনাল্টি কর্নারে ব্যবধান বেড়ে দাঁড়ায় ৪-১ গোলের। ২৪ মিনিটে ফজলে হোসেন রাব্বির ফিল্ড গোলে ব্যবধান ৫-১ এ নিয়ে যায় মেরিনার্স। ২৭ মিনিটে দারুণ এক ফিল্ড গোলে নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন সবুজ। সেই সঙ্গে দলের ব্যবধান বেড়ে দাঁড়ায় ৬-১ গোলের।

তৃতীয় কোয়ার্টারের শুরুতে আবারও স্টিকের ঝলক সবুজের। ৩১ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে দলকে ৭-১ ব্যবধানে এগিয়ে নেন এ ডিফেন্ডার। খেলার চতুর্থ ও শেষ কোয়ার্টারের ৫১ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে দলের ব্যবধান আরো বাড়িয়ে নেন সবুজ (৮-১)। পরের মিনিটে আবারো পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল সবুজের। এই গোলের মধ্য দিয়ে ম্যাচে নিজের ডাবল হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন সবুজ। দলের গোল ব্যবধান বেড়ে দাঁড়ায় ৯-১। মিনিট দুই পর আবারো গোল সবুজের। প্রতিপক্ষের সঙ্গে মেরিনার্সের ব্যবধান বেড়ে দাঁড়ায় (১০-১) গোলের। ৫৭ মিনিটে ম্যাচে ভিক্টোরিয়ার দ্বিতীয় গোল করেন মোহাম্মদ হাসান (১০-২)। ৫৮ মিনিটে আবেদ উদ্দিন ফিল্ড গোল করলে, মেরিনার্স ১১-২ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist