Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪
Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪

ভিক্টোরিয়ার জালে আবাহনীর ১৬ গোল

ভিক্টোরিয়ার জালে ১৬ গোল দিয়েছে আবাহনী। সোমবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে। ছবি: সংগৃহীত।
ভিক্টোরিয়ার জালে ১৬ গোল দিয়েছে আবাহনী। সোমবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে। ছবি: সংগৃহীত।
Picture of ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে টানা পঞ্চম জয় তুলে নিল শিরোপা প্রত্যাশী আবাহনী লিমিটেড। সোমবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে ভিক্টোরিয়া এসসিকে ১৬- ০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে আবাহনী। আবাহনীর আশরাফুল ইসলাম, পুষ্কর খীসা মিমো এবং ওবায়দুল হোসেন জয় হ্যাটট্রিক করেছেন। এছাড়া হুজাইফা হোসেন ২টি এবং ফরহাদ আহমেদ শিতুল ও রাকিবুল হাসান রকি ১টি করে গোল করেন।

আবাহনীর ১৬ গোলের ৭টিই এসেছে পেনাল্টি কর্নার থেকে, ১টি পেনাল্টি স্ট্রোক এবং বাদ বাকি ৮টি ছিল ফিল্ড গোল। পেনাল্টি কর্নার থেকে আগের ৪ ম্যাচে সেভাবে গোল পাচ্ছিল না আবাহনী। ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ সামনে রেখে আগের দিন পেনাল্টি কর্নার নিয়ে অনুশীলনে ঘাম ঝরিয়েছিল দলটি। সেই পরিশ্রমের ফল এই ম্যাচে পেয়েছে আবাহনী।

খেলায় প্রথম কোয়ার্টারে ৫-০ গোল ব্যবধানে এগিয়ে ছিল আবাহনী। দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ৯-০, তৃতীয় কোয়ার্টারে ১৩-০ এবং চতুর্থ ও শেষ কোয়ার্টারে ১৬-০ গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ম্যাচ শেষ করে ধানমণ্ডির দল।

আজাদকে সহজে হারাল অ্যাজাক্স

প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লিগে জয় পেয়েছে অ্যাজাক্স স্পোর্টিং ক্লাব। সোমবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম খেলায় আজাদ স্পোর্টিং ক্লাবকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে অ্যাজাক্স।

অ্যাজাক্সের ভারতীয় খেলোয়াড় সিলহেইবা লিশাম জোড়া গোল করেন। এছাড়া সুব্রত পাল ও আরেক ভারতীয় দীপক ১টি করে গোল করেন। আজাদ এসসির পক্ষে একমাত্র গোলটি করেন খোরশেদ।

আজাদ স্পোর্টিং ক্লাবকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে অ্যাজাক্স। ছবি : সংগৃহীত।

ম্যাচের শুরু থেকেই আজাদের ওপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে অ্যাজাক্স। একের পর এক আক্রমণ চলতে থাকে সমানে। খেলার ষষ্ঠ মিনিটে সিলহেইবার ফিল্ড গোলে এগিয়ে যায় অ্যাজাক্স (১-০)। প্রথম কোয়ার্টারে গোলের সুযোগ পায় আজাদও। কিন্তু লক্ষ্যভ্রষ্ট হিটে গোলবঞ্চিত থাকে দলটি।

দ্বিতীয় কোয়ার্টারের ২১ মিনিটে আবারও গোলের আনন্দ অ্যাজাক্সের। সুব্রত পালের দর্শনীয় ফিল্ড গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে দলটি (২-০)। তৃতীয় কোয়ার্টারের শুরুতে আজাদের জালে আবারও গোল অ্যাজাক্সের। ৩৪ মিনিটে দীপকের ফিল্ড গোলে ব্যবধান ৩-০ তে বাড়িয়ে নেয় দলটি। খেলার ৩৭ মিনিটে খোরশেদের ফিল্ড গোলে ব্যবধান ৩-১ এ নামিয়ে আনে আজাদ। মিনিট চারেক পর আবারও আজাদের জালে গোল। সিলহেইবার নিজের জোড়া গোলের পাশাপাশি অ্যাজাক্সকে ৪-১ ব্যবধানে এগিয়ে নেন।

খেলার চতুর্থ ও শেষ কোয়ার্টারে দুদল বেশ কয়েকটা গোলের সুযোগ নষ্ট করে। এর মধ্যে পেনাল্টি কর্নারও ছিল।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত