Beta
শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪

 ১৬ ছক্কায় অ্যালেনের বিশ্বরেকর্ড

টি-টোয়েন্টিতে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কা

ফিন অ্যালেন (নিউজিল্যান্ড) : ১৬ ছক্কা, বিপক্ষ পাকিস্তান ২০২৪

হজরতউল্লাহ জাজাই (আফগানিস্তান) : ১৬ ছক্কা, বিপক্ষ আয়ারল্যান্ড, ২০১৯

জিশান কুকিখেল (হাঙ্গেরি) : ১৫ ছক্কা,বিপক্ষ অস্ট্রিয়া, ২০২২

অ্যারন ফিঞ্চ (অস্ট্রেলিয়া) : ১৪ ছক্কা, বিপক্ষ ইংল্যান্ড, ২০১৩

জর্জ মানসি (স্কটল্যান্ড) : ১৪ ছক্কা, বিপক্ষ নেদারল্যান্ডস, ২০১৯

ক্রিস গেইল, রোহিত শর্মাকে বলা হয় ছক্কার রাজা। তারাও পারেননি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এক ইনিংসে ১১টার বেশি ছক্কা মারতে। বুধবার ডানেডিনে এই ফরম্যাট নিউজিল্যান্ডের ফিন অ্যালেন ব্যাট হাতে ঝড় তুলে গুঁড়িয়ে দিলেন টি-টোয়েন্টির একাধিক রেকর্ড। এর একটি ছক্কার।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬২ বলে ১৩৭ রানের ইনিংসে অ্যালেন ছক্কা মেরেছেন ১৬টি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এটাই এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কার রেকর্ড। ২০১৯ সালে আফগানিস্তানের হজরতউল্লাহ জাজাইও মেরেছিলেন সমান ১৬ ছক্কা।

হারিস রউফের বলেই ৬টি ছয় মেরেছেন অ্যালেন, ষষ্ঠ ওভারে ছিল এর ৩টি। ওই ওভারে মোট ২৮ রান দেন রউফ।

ফিনের বিস্ফোরক ইনিংসে উড়ে গেছে পাকিস্তান। সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে তারা হেরেছে ৪৫ রানে। নিউজিল্যান্ডের ৭ উইকেটে ২২৪ রানের জবাবে পাকিস্তান থামে ৭ উইকেটে ১৭৯ রানে। টানা তৃতীয় ম্যাচে ফিফটি করেন বাবর আজম। কিন্তু তার ৩৭ বলে ৫৮ রানের ইনিংস বাঁচাতে পারেনি পাকিস্তানকে। পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৩-০’তে নিশ্চিত করে নিল কিউইরা।

চোটের কারণে ছিটকে যাওয়া কেন উইলিয়ামসনের জায়গায় খেলে অনেক রেকর্ডই এলোমেলো করলেন অ্যালেন। তার ১৩৭ রানের ইনিংসটি নিউজিল্যান্ডের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস। ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ২০১২ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৫৮ বলে ১২৩ রানের রেকর্ডটা ভাঙলেন তিনি।

অ্যালেন সেঞ্চুরি করেছেন ৪৮ বলে। নিউজিল্যান্ডের হয়ে এটি তৃতীয় দ্রুততম। গ্লেন ফিলিপস ৪৬ বলে এবং কলিন মানরো ৪৭ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন এই ফরম্যাটে।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অ্যালেনের ইনিংসটি পঞ্চম সর্বোচ্চ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সর্বোচ্চ। পাকিস্তানের বিপক্ষে আগের সর্বোচ্চ ১০৪ রান করেছিলেন নিউজিল্যান্ডেরই মার্ক চ্যাপম্যান।

জামান খানের স্লোয়ার অফ কাটারে শেষ পর্যন্ত ফিন বোল্ড হন ১৮তম ওভারে। হারিস রউফ ৬০ রানে ২টি আর শাহীন শাহ আফ্রিদি ৪৩ রানে নেন ১ উইকেট।

পাকিস্তানি ব্যাটারদের মধ্যে বাবর আজমের ফিফটি ছাড়া মোহাম্মদ রিজওয়ান করেন ২০ বলে ২৪ ও মোহাম্মদ নওয়াজ ১৫ বলে ২৮ রান। ২ উইকেট টিম সাউদির।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist