Beta
শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪
Beta
শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪

ক্লাব ইতিহাসের সর্বোচ্চ দর্শকের সামনে ফাইনালে

আথলেতিক বিলবাওয়ের গোল উদযাপন। ছবি: টুইটার
আথলেতিক বিলবাওয়ের গোল উদযাপন। ছবি: টুইটার
Picture of ক্রীড়া ডেস্ক

ক্রীড়া ডেস্ক

রিয়াল মাদ্রিদকে কোপা দেল রে থেকে বিদায় করেছিল আতলেতিকো মাদ্রিদ। বার্সেলোনাও এই টুর্নামেন্টে নেই। তাই প্রতিযোগিতাটি জেতার দৌড়ে এগিয়ে ছিল আতলেতিকো। কিন্তু সেমিফাইনালে থামতে হলো তাদের। আথলেতিক বিলবাওয়ের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি মাদ্রিদের ক্লাবটি। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) শেষ চারের দ্বিতীয় লেগে ডিয়েগো সিমিওনের দলকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে তারা।

সান মামেসের এই জয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-০ গোলের অগ্রগামিতায় ফাইনালে উঠে গেছে বিলবাও। তাদের সমর্থন দিতে ঘরের মাঠে উপস্থিত হয়েছিল ৫২ হাজার ৬১ জন দর্শক। বিলবাওয়ের ইতিহাসে সর্বোচ্চ দর্শকের উপস্থিতি এটি। ফাইনাল-স্বপ্ন নিয়ে স্টেডিয়ামে আসা দর্শকদের নিরাশ করেননি ইনাকি উইলিয়ামস ও নিকো উইলিয়ামস। এই দুই ভাইয়ের গোলে আতলেতিকোকে উড়িয়ে ফাইনালে পৌঁছে গেছে বিলবাও। মাদ্রিদের ক্লাবের ঘরের মাঠে হওয়া প্রথম লেগ বিলবাও জিতেছিল ১-০ গোলে।

৬ জুনের ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ মায়োর্কা। রিয়াল সোসিয়েদাদকে টাইব্রেকারে হারিয়ে শিরোপা লড়াইয়ের মঞ্চে উঠেছে দলটি। মায়োর্কা সবশেষ ২০০৩ সালে কোপা দেল রে জিতেছিল। এর আগে ফাইনাল খেলেছিল ১৯৯১ ও ১৯৯৮ সালে। অন্যদিকে গত পাঁচ বছরে এ নিয়ে তৃতীয়বার কোপা দেল রে’র ফাইনালে উঠল বিলবাও।

আতলেতিকোকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিতের পর নিকো উইলিয়ামস বলেছেন, “আমাদের (খেলোয়াড়দের) যোগাযোগটা দারুণ। আমরা একে অন্যকে খুব ভালো বুঝতে পারি। ভীষণ আনন্দিত। ফাইনালে খেলতে পারাটা স্বপ্নের মতো ব্যাপার। আর এই কাজটা আমরা করেছি আমাদের সমর্থকদের সামনে। নিজেদের সমর্থকদের সামনে জয় উদযাপন সবসময়ই দারুণ। আশা করছি আমরা ফাইনালও জিততে পারব।”

কোপা দেল রে’র দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শিরোপা জেতা দল বিলবাও। স্পেনের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ প্রতিযোগিতাটির ২৩বারের চ্যাম্পিয়ন তারা। সর্বোচ্চ জয়ী বার্সেলোনার চেয়ে আটটি শিরোপা কম তাদের। আরেকটি ফাইনালে ওঠায় সংখ্যার ব্যবধান কমিয়ে আনার সুযোগ তৈরি হয়েছে বিলবাওয়ের।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত