Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

নেতৃত্বে ফিরছেন বাবর, ফিরছে অস্বস্তিও

11111111111111111

ওয়ানডে বিশ্বকাপ ব্যর্থতায় প্রশ্ন উঠেছিল বাবর আজমের অধিনায়কত্ব নিয়ে। এরপর বাবর নিজেই ছেড়ে দেন তিন ফরম্যাটের নেতৃত্ব। সরকার বদলের পর পিসিবির নতুন চেয়ারম্যান মহসিন নাকভি ইঙ্গিত দিয়েছেন আবারও বাবরকে ফিরিয়ে আনার।

পাকিস্তান মিডিয়াতেও এ নিয়ে চলছে গুঞ্জন। ‘ক্রিকেট পাকিস্তান’ জানাচ্ছে নেতৃত্বে ফিরতে কয়েকটি শর্ত দিয়েছেন বাবর। সেগুলো মানা হলে দায়িত্ব নিতে আপত্তি নেই তার।

বাবরের ফেরা মানে শাহিন শাহ আফ্রিদির টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব হারানো। অথচ দায়িত্ব পাওয়ার পর পাকিস্তান কেবল একটাই সিরিজ খেলেছে তার নেতৃত্বে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেই সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে হেরেছিল পাকিস্তান।

এরপর পিএসএলেও ব্যর্থ শাহিন। তার দল কোয়েটা গ্লাডিয়েটরস পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থাকায় প্রশ্ন উঠেছে শাহিনের নেতৃত্ব নিয়ে। যদিও শাহিনের অধিনায়কত্বেই কোয়েটা শিরোপা জিতেছিল ২০২২ ও ২০২৩ পিএসএলের। একই দল এবার লিগ পর্বে জিতেছে এক ম্যাচ।

শাহিনকে সরিয়ে দেওয়াটা মানতে পরছেন না শহীদ আফ্রিদি।

এজন্যই বিশ্বকাপের আগে বাবরকে নেতৃত্বে দেখতে চান অনেকে। তবে শাহিনের শ্বশুর ও পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি এর বিপক্ষে। তিনি জানালেন, ‘‘যদি অধিনায়ক বদলান, তাহলে বলব তাকে নিয়োগ দিয়ে ভুল করেছিলেন, নাহলে এখন পরিবর্তন করে ভুল করছেন। কাউকে অধিনায়ক করলে তাকে সময়ও দেওয়া দরকার।’’

বাবরের সঙ্গে তাই দূরত্ব তৈরি হওয়ার শঙ্কা থাকছে শাহিনের। তেমনি প্রশ্ন উঠবে ইমাদ ওয়াসিম ও মোহাম্মদ আমিরকে নিয়েও। বাবরের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়াতেই অবসর নিয়েছিলেন ইমাদ। পিএসএলে ভালো করায় অবসর ভেঙে জাতীয় দলে ফিরেছেন তিনি।

বিশ্বকাপে বাবরের কড়া সমালোচনা করেছিলেন মোহাম্মদ আমির। তিনিও অবসর ভেঙে ফিরেছেন জাতীয় দলে। তাদের জাতীয় দলে খেলা মানে তো অস্বস্তি বাড়া বাবরের।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist