Beta
সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪

সিরিজ জয়ের লড়াই শুরু

44444444

টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারানোর শোক ভুলে এখন ওয়ানডেতে নজর দেয়ার পালা। যে ফরম্যাটে এখন বাংলাদেশ বেশ ভালো খেলে। ২০২৩ বিশ্বকাপ বাদ দিলে আগের বছরগুলো এই ফরম্যাটে সেরা ফর্মে ছিল বাংলাদেশ। সেই ফর্মের ছন্দ পতন হয় গত বছরেই।

হারানো সেই ছন্দ ফিরে পাওয়ার লড়াই হয়েছিল গত বছর নিউজিল্যান্ডে। কিউইদের মাটিতে প্রথম ওয়ানডে জয়ে বিশ্বকাপ দুঃখ কিছুটা ভুলতে পেরেছিল বাংলাদেশ। এবার ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ জিতলে ওয়ানডেতে হারানো আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে পারেন নাজমুল হোসেন শান্তরা।

বিশ্বকাপের আগে ওয়ানডে সুপার লিগে তিনে থেকে বিশ্বকাপে পা রেখেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু আসরের আগে নানা ছন্দ পতনে সুপার লিগে তিনে থাকার প্রতিফলন ঘটাতে পারেননি সাকিব আল হাসানরা। বিশ্বকাপের পর নতুন শুরুর স্বপ্নে এবার চেনা প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কাকে সামনে পাচ্ছে বাংলাদেশ।

সবশেষ ২২ ওয়ানডের হিসেব ধরলে টাইগারদের হার ১৫ ম্যাচেই। জয় শুধু ৬টিতে। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফল আলাদা করলে স্বস্তি আছে। লঙ্কানদের সঙ্গে বিশ্বকাপে দিল্লিতে সবশেষ মুখোমুখি হওয়া ম্যাচে জয় আছে। ২০২১ সালে দলটির সঙ্গে ঘরের মাঠে হওয়া ওয়ানডে সিরিজেও জয় আছে বাংলাদেশের।

লঙ্কানদের বিপক্ষে ১৯৮৬ থেকে ওয়ানডে শুরু করে মোট ৫৪ ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছে ৪২টিতে। কিন্তু ২০০৬ সালে বগুড়ায় দলটির বিপক্ষে প্রথম জয়ের পর মোট ৩৯ ম্যাচে বাংলাদেশের জয় আছে ১০টি।

এই সাফল্য আরও বাড়িয়ে নেয়ার সুযোগ থাকছে এবার। ২০২১ এ গত সিরিজে মিরপুরে হওয়ার তিন ম্যাচে ২-১ এ জেতার সুখস্মৃতি আছে। এবার চট্টগ্রামের তিন ম্যাচেই সিরিজ জয়ের সাফল্য দেখাতে চায় বাংলাদেশ।

নাজমুলদের এই ভরসা দিচ্ছে চট্টগ্রাম। এ মাঠের উইকেট ব্যাটিং সহায়ক হলেও শ্রীলঙ্কার বর্তমান দলের কাছে মাঠটি একেবারে নতুন। সবশেষ ২০০৬ সালে চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচ খেলেছিল শ্রীলঙ্কা। ওই দলের একজনও নেই এবারের স্কোয়াডে।

লঙ্কানদের অপরিচিত কন্ডিশনে তাই কুশল মেন্ডিসদের প্রথম ম্যাচ থেকেই চেপে ধরতে চায় বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist