Beta
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪

শান্তদের ‘আবেগী’ রিভিউ

মাঝ ব্যাটে লাগা বলে রিভিউ নেন শান্ত। ছবি: সংগৃহীত
মাঝ ব্যাটে লাগা বলে রিভিউ নেন শান্ত। ছবি: সংগৃহীত

চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিনের দ্বিতীয় সেশনের খেলা চলছিল তখন। সফরকারী শ্রীলঙ্কার দাপুটে ব্যাটিংয়ের সামনে উইকেটের খোঁজে বাংলাদেশ। সেসময় নাজমুল হোসেন শান্তরা হাস্যকর এক মুহূর্তের জন্ম দিলেন। তাইজুল ইসলামের বল কুশল মেন্ডিসের মাঝ ব্যাটে লাগলেও রিভিউ নেন শান্ত। অবশ্য এবারই প্রথম নয়, আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের চ্যালেঞ্জ জানাতে বারবারই ভুল করছে বাংলাদেশ। এর কারণ হিসেবে ‘আবেগকে বেশি কাজে লাগানোর’ কথা জানালেন বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ আন্দ্রে অ্যাডামস।

সিলেট টেস্টের হারের পর চট্টগ্রামে জয়ের খোঁজে নেমেছে বাংলাদেশ। দুই ম্যাচের সিরিজে হার ঠেকাতে জয়ের বিকল্প নেই স্বাগতিকদের সামনে। সেই মিশনে শুরুটা ভালো হয়নি। প্রথম দিন শেষে ৪ উইকেটে ৩১৪ রান করেছে শ্রীলঙ্কা। উইকেট অবশ্য আরও বাড়তে পারতো, যদি ক্যাচের সুযোগগুলো ঠিকমতো কাজে লাগাতে পারতো বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কার ব্যাটারদের দাপটের বিপরীতে অসহায় দিন পার করেছে বাংলাদেশের বোলাররা। তবে প্রথম দিনে আলোচনার বড় খোরাক জুগিয়েছে বাংলাদেশের হাস্যকর রিভিউ। ব্যাটের মাঝে লাগা বলে কেউ রিভিউ নিতে পারে, সেটা যেন বিশ্বাসই হচ্ছে না বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমতো ট্রলের শিকার শান্তরা।

সংবাদ সম্মেলনেও উঠে এলো ওই রিভিউয়ের বিষয়টি। বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হয়ে আসা অ্যাডামস বলেছেন, “এটা নিয়ে আমরা আলোচনা করছি। একটা বিষয় স্পষ্ট যে রিভিউ নেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা অনেক পিছিয়ে। এখন পর্যন্ত এই ব্যাপারে আমাদের অবস্থা ভয়াবহ। আমাদের একটা পদ্ধতি ঠিক করা উচিত, হতে পারে সেটা অধিনায়ক, উইকেটকিপার বা পয়েন্টের ফিল্ডারের মিলিত কিছু।”

তাহলে এতদিন কীসের ভিত্তিতে রিভিউ নিচ্ছে বাংলাদেশ দল? অ্যাডামস এখানে আবেগের কথা বললেন, “এখন আমরা যেভাবে কাজ করছি তা সফল হচ্ছে না। এখন হয়তো ফ্যাক্টের চেয়ে আমরা আবেগটা বেশি কাজে লাগাচ্ছি। নয়তো মাঝ ব্যাটে লাগা বলে রিভিউ নেওয়া হতো না (হাসি)। অবশ্যই ওটা সঠিক রিভিউ ছিল না। পাশাপাশি এটাও বলব, কেউ যেন রিভিউ নিতে ভয় না পায়।”

প্রথম দিন শেষে চট্টগ্রাম টেস্টে চালকের আসনে শ্রীলঙ্কা। তবে পরিস্থিতি অন্যরকম হতে পারতো যদি সকালের সেশনে পাওয়া সুযোগগুলো কাজে লাগাতো বাংলাদেশ। বেশ কয়েকটি ক্যাচ মিস করেছে স্বাগতিকরা। এখানে প্রথম টেস্টের ছবিই দেখছেন অ্যাডামস, “আমরা সকালে উইকেট নেওয়ার সুযোগ তৈরি করলাম। কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারিনি। ঠিক যেন প্রথম টেস্টের পুনরাবৃত্তি। সিলেটে আমরা প্রথম সেশনে ৫ উইকেট নিয়েছিলাম, যা অসাধারণ ছিল। কিন্তু ক্যাচ মিস করে ওই অবস্থান থেকে নিজেরাই পিছিয়ে পড়ি।”

সঙ্গে যোগ করেছেন, “ক্যাচ মিস আমাদের ভোগাচ্ছে, এটা সত্যিই হওয়া উচিত না। একারণে টেস্টে আধিপত্য ধরে রাখতে পারছি না। ঠিক আগের টেস্টের মতোই। আমাদের যদি শক্ত লড়াই দিতে হয়, তবে অবশ্যই লম্বা সময় ধরে ভালো করতে হবে।”

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist