Beta
মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪
Beta
মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪

মেসি যুগের পর প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে বার্সা

b
Picture of ক্রীড়া ডেস্ক

ক্রীড়া ডেস্ক

চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল ভুলেই গিয়েছিল বার্সেলোনা। সবশেষ তারা যখন শেষ আটে, তখনও খেলতেন ক্লাব কিংবদন্তী লিওনেল মেসি। তিনি ক্লাব ছাড়ার পর কাল (মঙ্গলবার) প্রথমবার শেষ আটের টিকিট পেলে জাভির দল।

‘ম্যারাডোনা ডার্বি’ খ্যাত ম্যাচে নাপোলিকে ৩-১ গোলে হারাল তারা। নকআউটের প্রথম লেগে ড্র ছিল ১-১ গোলে। দুই লেগ মিলিয়ে ৪-২ অগ্রগামিতায় শেষ আটের টিকিট বার্সার। সবশেষ ২০২০ সালে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছিল তারা। লিওনেল মেসি ক্লাব ছাড়ার পর তারা একবার খেলেছিল শেষ ষোলতে, আর দুবার বাদ পড়ে গ্রুপ পর্ব থেকে।

পোস্টে ২৪টি শট নিয়ে ১০টি লক্ষ্যে রাখে বার্সেলোনা। নাপোলির ১৪ শটের ৪টি ছিল লক্ষ্যে।

১৫ মিনিটে বার্সা উইঙ্গার ফারমিন লোপেজ এগিয়ে নেন দলকে। বক্সের ভেতর বাঁ দিক থেকে রাফিনিয়ার কাটব্যাকে ডান পায়ের নিচু শটে বল জালে পাঠান ২০ বছর বয়সী স্প্যানিশ মিডফিল্ডার।

এর দুই মিনিট ব্যবধান ২-০ করেন জোয়াও কানসেলো। রাফিনিয়ার  শট পোস্টে লেগে ফিরে আসে। ফিরতি বল ফাঁকা জালে পাঠান এই পর্তুগিজ ডিফেন্ডার।

৩০  মিনিটে সেন্টার ব্যাক আমির রাহমানির গোলে ব্যবধান কমায় নাপোলি। এরপর বার্সা খেলছিল এলোমেলো ফুটবল। ভিক্টর ওসিমেনকে লক্ষ্য করে লম্বা পাসে খেলছিল নাপোলি। কিন্তু বার্সার হাই লাইন ডিফেন্স ভাঙ্গতে পারেননি তিনি। বারবার পড়ছিলেন অফসাইডের ফাঁদে।  

এরই মাঝে ৮৩ মিনিটে সার্জি রবার্তোর পাস থেকে গোল করে বার্সাকে ম্যাচে ৩-১ গোলে এগিয়ে দেন রবার্ত লেভানদোস্কি। প্রথম লেগেও গোল করেছিলেন তিনি। নাপোলি এরপর আর পায়নি গোলের দেখা।

গোল না পেলেও ১৬ বছরের লামিল ইয়ামাল কিংবা পাউ কুবারসিরা ছিলেন দুর্দান্ত। কুবারসি তো হয়েছেন ম্যাচ সেরাই। এই তারুণ্যের শক্তিতে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের আশা করতেই পারে বার্সা। ম্যাচ শেষে বিদায় নিতে চলা কোচ জাভি জানালেন, ‘‘কোয়ার্টার ফাইনালে এতদিন পর ফিরে সন্তুষ্ট আমরা। এর দাবিদার ছিল ছেলেরা। এখন ড্রতে কার সঙ্গে খেলতে হয় সেটাই দেখার।’’

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত