Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

হতাশার ব্যাটিংয়ে হারের ক্ষণ গুনছে বাংলাদেশ

দায়িত্বহীন শটে উইকেট ছুঁড়ে এসেছেন লিটন। ছবি : সংগৃহীত
দায়িত্বহীন শটে উইকেট ছুঁড়ে এসেছেন লিটন। ছবি : সংগৃহীত

অবিশ্বাস্য বললেও ভুল হবে, এমন স্বেচ্ছা উইকেট বিসর্জন আর কোন দলের ব্যাটাররা করতেন কিনা বলা সন্দেহ। নবম ওভারে ৩৭ রানে ৪ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর লিটন দাস উইকেটে আসেন। প্রথম বলেই ডাউন দ্যা উইকেটে গিয়ে বিশ্ব ফার্নান্দোকে উড়িয়ে মারতে গেলেন। বল তার ব্যাটে লেগে মাঝ পিচের ওপরে আকাশে উঠল। সহজ ক্যাচ ধরে আনন্দে হাসলেন অ্যাঞ্জোলো ম্যাথুজ।

শুধু ম্যাথুজ নয়, পুরো শ্রীলঙ্কা দলই হেসেছে এদিন। বাংলাদেশ ব্যাটারদের আউট হওয়ার ধরণ তাদের জন্য হাসির উপলক্ষ্যই। একের পর এক উইকেট ছুঁড়ে আসার মিছিলে টিকে আছেন মুমিনুল হক ও তাইজুল ইসলাম। মুমিনুল ৭ ও তাইজুল ৬ রানে অপরাজিত থেকে তৃতীয় দিন শেষ করেছেন।

শিশু সুলভ ভুল শুধু লিটন নন, নাজমুল হোসেন শান্তও করেছেন। ৫ বলে ৬ রান করে উইকেট ছুঁড়ে এলেন অফস্ট্যাম্পের অনেক বাইরের বলে ব্যাট চালিয়ে। শাহাদাত হোসেন দিপু লাহিরু কুমারার অফস্ট্যাম্পের বাইরের বলে ছাড়তে পারেননি। ডিফেন্স করতে গিয়ে ফিরলেন ০ রানে। এর আগে মাহমুদুল হাসান জয় বিশ্ব ফার্নান্দোর ইনসুইংগারে পরাস্ত হন ০ রানে। বেশ কিছু শট খেলে ২২ বলে ১৯ রান করেছিলেন জাকির হাসান। বেশি শট খেলতে গিয়েই উইকেটের পেছনে ক্যাচ আউট হয়েছেন তিনি।  

সারাদিনের ক্লান্তি শেষে ১৩ ওভার ব্যাট করা, বাংলাদেশ ব্যাটারদের জন্য সত্যিই কঠিন ছিল। কিন্তু উইকেটে টিকে থেকে ইনিংস বড় করা, সেট হওয়ার চেষ্টা করা, লড়াই ফিরিয়ে দেয়ার কোন চেষ্টাই যে করেননি তারা। সত্যি বলতে শান্ত-লিটনদের আউট দেখে মনে হচ্ছিল তাদের “ব্রেইনফেড” হলো না তো!

তৃতীয় দিন শেষে ৪৭ রান করতেই বাংলাদেশের ৫ উইকেট নেই। এমন ম্যাচে ৫১১ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জয়ের স্বপ্ন দেখাও দুঃসাহস। বাংলাদেশের এখন আর সেই সাহস দেখানোর কিছু নেই। বড়জোড় বড় হার এড়ানোর লক্ষ্যটাও হয়ত কঠিন হয়ে গেল। লম্বা ইনিংস খেলার টেস্টে এমন ব্যাটিং!

অথচ সারাদিন বিপক্ষের দুই লঙ্কান ব্যাটারকে সাবলীল ব্যাট করতে দেখেছেন শান্ত-লিটনরা। উইকেটের বাইরের বল খেলার চেষ্টাই করেননি তারা। বাংলাদেশ বোলারদের হাফভলির অপেক্ষায় ছিলেন। একটা সময় বোলারদের ধৈর্য্য হারা হতে বাধ্য করেছেন। সামনে থেকে তা দেখেও কিছুই শিখলেন না তারা।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist