Beta
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪
Beta
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪

মেয়েদের ক্যাচ ও ফিল্ডিং মিসের হাহাকার

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই বোল্ড লিচফিল্ড। এই শুরু অবশ্য ধরে রাখা যায়নি ইনিংসের শেষ পর্যন্ত। ছবি : ক্রিকইনফো
ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই বোল্ড লিচফিল্ড। এই শুরু অবশ্য ধরে রাখা যায়নি ইনিংসের শেষ পর্যন্ত। ছবি : ক্রিকইনফো
Picture of ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

তিন ব্যাটারের স্পষ্ট চার ক্যাচ মিস। বাউন্ডারী লাইনে বাঁচাতে পারেননি বেশ কয়েকটি চার। আরও কিছু ফিল্ডিং মিসে সিঙ্গেল-ডাবলসও দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ নারীদের এমন ছন্নছাড়া ফিল্ডিংয়ে প্রথম ম্যাচে সুযোগ থাকতেও অস্ট্রেলিয়া নারীদের অল্প রানে আটকে দেয়া যায়নি। নির্ধারিত ওভার শেষে অস্ট্রেলিয়া নারী দল ৭ উইকেটে ২১৩ রান করেছে।

শেষ ওভারে ফাহিমা খাতুনের ওভারে ২৯ রান নিয়েছেন অ্যালানা কিং একাই। যা মেয়েদের ওয়ানডেতে এক ওভারে সর্বোচ্চ রান দেয়ার রেকর্ড।

ওভারে চারটি ছক্কা ও একটি চার হাঁকান এই ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত ৩১ বলে ৫ ছক্কা ও ২ চারে ৪৬ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। অপর ব্যাটার অ্যানাবেল সাদারল্যান্ড ৭৬ বলে ৫৮ রানে অপরাজিত থাকেন। দুজনের জুটি ছিল ৬৭ রানের।

অথচ শুরুতে অস্ট্রেলিয়াকে দারুণ চেপে ধরেছিল বাংলাদেশ বোলাররা। মিরপুরের উইকেটে স্পিনারদের ঘূর্নিতে নাজেহাল হন অজি ব্যাটাররা। শুরুর ২০ ওভারে তাদের রান ছিল ৪ উইকেটে ৫৭। নিগার সুলতানা জ্যোতিদের সামনে অজিদের ১২০ এই আটকে দেয়ার সুযোগ তখন।

অথচ অজিদের ম্যাচে ফেরার সুযোগ করে দেন ফিল্ডাররা। একের পর এক ক্যাচ মিসে ব্যাটারদের দ্বিতীয় সুযোগ দেন। এক অধিনায়ক অ্যালিসা হিলিই পেয়েছেন দুটি সুযোগ। অবশ্য ২৪ রানে আউট হওয়ায় খুব একটা ক্ষতি হয়নি।

কিন্তু লোয়ার অর্ডারে নামা অ্যাশলি গার্ডনার একবার জীবন পেয়ে এগিয়ে দিয়েছেন দলকে। ৩৮ বলে ৩ চারে ৩২ রান করেন তিনি। অ্যানাবেল সাদারল্যান্ডকে নিয়ে ৩৪ রানের জুটি গড়েন। ৭৮ রানে ৫ উইকেট পড়ার পর এই জুটিতে ম্যাচে ফেরার পথ পেয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া।

গার্ডনার ফিরলেও এই জুটির অপর ব্যাটার সাদারল্যান্ড টিকে যান উইকেটে। হাফসেঞ্চুরিও করেন তিনি। তার রান পাওয়া আরও সুযোগ করে দেন বাংলাদেশ ফিল্ডাররা। সাদারল্যান্ড তিনটি চার উপহার পান বাংলাদেশ ফিল্ডারদের মিসে। ৪৯ তম ওভারে ৫৭ রানে থাকার সময় তার ক্যাচ ফেলেন জ্যোতি। ইনিংসে চতুর্থ ক্যাচ মিস হয় তাতে।

শুরুতে অজি ব্যাটারদের চেপে ধরেছিল বাংলাদেশ স্পিনাররা। সেই ধারাটা অবশ্য শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পারেনি তারা। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন সুলতানা খাতুন ও নাহিদা আকতার। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন ফাহিমা খাতুন, স্বর্ণা আকতার ও মারুফা আকতার।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত