Beta
শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪
Beta
শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪

মিরপুরে হলো নিশাম ঝড়

a9d583b8-f61c-4d40-a3a4-aeba094e419d
Picture of ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শেষ ওভারের খেলা শুরুর আগে ৬ উইকেটে ১৫৭ রান ছিল রংপুর রাইডার্সের। তখনও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ১৮০ ছাড়ানো স্কোরকে সম্ভব মনে হয়নি রংপুরের জন্য। জেমস নিশাম ভিন্ন কিছু ভেবে রেখেছিলেন। তরুণ মুশফিক হাসানের ওপর ঝড় তুলে দলকে ৬ উইকেটে ১৮৫ রানের পুঁজি এনে দেন। শেষ ওভারে ২৬ রান নিয়েছেন নিশাম একাই।

১৯তম ওভার শেষে নিশামের রান ছিল ৭১। শেষ ওভারটিতে টানা দুই চার ও দুই ছক্কা হাঁকান। এক বল মিসের পর আবারও ছক্কা মারেন। তাতে ৯৭ রানে পৌঁছে যান নিশাম। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তখন হাতছানি দিচ্ছে। কিন্তু শেষ বলে মুশফিকের ইয়র্কারকে আর বাউন্ডারী ছাড়া করতে পারেননি।

তাই ৪৯ বলে ৭টি ছক্কা ও ৮ চারের অসাধারণ ইনিংসটিকে আর সেঞ্চুরিতে রূপ দিতে পারেননি নিশাম। তবুও তার একার লড়াইয়ে ১০৪ রানে ৫ উইকেট হারানো রংপুর জয়ের স্কোর গড়ে ফেলেছে। ৪ ওভারে ৭২ রান দিয়ে বিপিএল ইতিহাসে সবচেয়ে খরুচে বোলার হয়েছেন মুশফিক।

আগের ম্যাচগুলোতে রংপুর রাইডার্সের মিডলঅর্ডাররা দারুণ করেছিলেন। দলটির বড় রানের মূল উৎস ছিলেন তারা। কিন্তু প্রথম কোয়ালিফায়ারে কুমিল্লার সঙ্গে শুরুটা সেরকম হয়নি। এই ম্যাচে বিপিএল অভিষেক হয় যুব বিশ্বকাপ খেলে আসা পেসার রোহানাত দৌলা বর্ষণের। রনি তালুকদারের উইকেট নিয়ে বড় পর্যায়ে নিজের অভিষেক স্মরণীয় করেছেন এই তরুন।

ম্যাচের শুরুতে দুই দলের জম্পেশ লড়াইয়ের আশা ছিল। কিন্তু শুরুর ৫ ওভারের মাঝেই ম্যাচ হেলে পড়ে কুমিল্লার দিকে। ৪.৪ ওভারেই সাকিব সহ ৩ ব্যাটার আউট হন ২৭ রানে। গত কয়েকটি ম্যাচে দারুণ খেলা মেহেদি হাসান এবার বেশি এগোতে পারেননি। ১২ বলে ২২ করে আউট হন।

শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে নিশাম হাল ধরেন। সাকিবের বিদায়ের পর নেমে রংপুরের পুরো ইনিংস একপ্রান্ত আগলে টেনেছেন। মেহেদির সঙ্গে চতুর্থ উইকেটে ৩৯ রানের জুটি গড়েন। এই ম্যাচে প্রথম খেলতে নামা নিকোলাস পুরানও বেশি এগোতে পারেননি। ১টি করে ছক্কা-চারে ৯ বলে ১৪ করেন।

১০৪ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর নুরুল হাসান সোহানকে নিয়ে ভালো জুটি গড়েন নিশাম। ২৪ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৩০ রান করা সোহানকে নিয়ে ৫৩ রানের জুটি গড়েন। এ জুটিতেই ভালো স্কোর গড়ার সুযোগ পেয়ে যায় রংপুর।  

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত