Beta
মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪
Beta
মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪

ফিলিস্তিনকে বাঁচানোর আহ্বান বিপিএলের দর্শকদের

মাঠে ঢোকার আগে ফিলিস্তিনের পতাকা কিনছেন দর্শকেরা। শুক্রবার মিরপুর স্টেডিয়ামে। ছবি: সকাল সন্ধ্যা
মাঠে ঢোকার আগে ফিলিস্তিনের পতাকা কিনছেন দর্শকেরা। শুক্রবার মিরপুর স্টেডিয়ামে। ছবি: সকাল সন্ধ্যা
Picture of ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢোকার মুখের ফুটপাথে দেদারছে বিক্রি হচ্ছে বিপিএলের বিভিন্ন দলের পতাকা। বিক্রি হচ্ছে দলগুলোর লোগো আঁকা নানা রঙের টুপি। এসব পতাকার পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে বিক্রি হতে দেখা গেল ফিলিস্তিনের পতাকা।

মিরপুরে শুক্রবার শুরু হয়েছে বিপিএলের দশম আসর। দুপুরে প্রথম ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের মুখোমুখি হয়েছে দুর্দান্ত ঢাকা। ম্যাচ শুরুর আগে দর্শকেরা যেমন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের পতাকা কেনেন, তেমনি অনেকে কেনেন ফিলিস্তিনের পতাকাও।

গ্যালারিতে দর্শকদের হাতে ছিল ফিলিস্তিনের পতাকা। ছবি: সকাল সন্ধ্যা।

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরায়েলের নির্বিচার হামলার প্রতিবাদ জানাতেই ওই পতাকা কেনে দর্শকেরা। এদেরই একজন মোহাম্মদ মহিউদ্দিন। মাঠে ঢোকার আগে কুমিল্লার পতাকার সঙ্গে কিনেছেন একটা ফিলিস্তিনের পতাকাও।

জামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলুম ফরিদাবাদ মাদ্রাসার ছাত্র মহিউদ্দিন বলছিলেন, “বিপিএলের মাধ্যমে পুরো জাতিকে জানাতে চাই যে ফিলিস্তিনকে সমর্থন করা আমাদের সবার কর্তব্য। ইসরাইল ফিলিস্তিনের সাধারণ মানুষের ওপর নৃশংস হামলা করছে। আমরা ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়াতে চাই। ইসরাইলি পণ্য আমরা যার যার জায়গা থেকে যেন বর্জন করি।”

ফিলিস্তিনের পতাকা হাতে কিশোর রিহাম হোসেন। ছবি: সকাল সন্ধ্যা।

রাজধানীর ইসিবি থেকে খেলা দেখতে এসেছে কিশোর রিহাম হোসেন আজতিক। কপালে বাঁধা বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা। হাতে ধরা ফিলিস্তিনের পতাকা। তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র রিহাম মিরপুরে নিয়মিতই ক্রিকেট ম্যাচ দেখতে আসে। ছোট্ট রিহাম পতাকা হাতে নিয়ে বলছিল, “পতাকাটা কিনেছি কারণ আমি ইসরাইলকে এই যুদ্ধ থামাতে বলছি। ওরা অন্যায়ভাবে অনেক শিশু মেরে ফেলছে। আমি এই যুদ্ধের প্রতিবাদ জানাই।”

মিরপুর স্টেডিয়ামের ফুটপাথে পতাকা, জার্সি, টুপি বিক্রি করে সংসার চলে মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের। আগে শুধু ক্রিকেটের বিভিন্ন ক্লাব ও বাংলাদেশ দলের জার্সি বিক্রি করতেন। ইদানিং সবাই এসে ফিলিস্তিনের পতাকাও খোঁজ করেন। সেই আগ্রহ থেকেই এই পতাকা নিজের কাছে রেখেছেন, “আজ মাত্রই খেলা শুরু হলো। সেই হিসেবে এই পতাকা ভালোই বিক্রি হচ্ছে। বাচ্চারাও পতাকা কিনে স্লোগান দিচ্ছে, ইসরাইলেন পণ্য ব্যবহার করবে না।”

মাঠে ঢুকেও দেখা গেল প্রচুর দর্শকের হাতে পতাকা। কারো হাতে ছিল সেভ প্যালেস্টাইন লেখা প্ল্যাকার্ড।

মিরপুর স্টেডিয়ামে বিপিএল দেখতে আসা দর্শকদের সেলফি। ছবি: সকাল সন্ধ্যা।

খেলার মাঠে রাজনৈতিক প্রতিবাদ অবশ্য নতুন কিছু নয়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই এটা দেখা যায়। গত বছর ১৭ অক্টোবর তো বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রাক-বাছাই পর্বে বাংলাদেশের ফুটবলাররাই মালদ্বীপের বিপক্ষে ম্যাচে এভাবে প্রতিবাদ জানিয়েছিল।

বসুন্ধরা কিংস অ্যারিনায় সেদিন ম্যাচ শেষে ফুটবলারদের হাতে দেখা গিয়েছিল বিশাল আকারের প্ল্যাকার্ড। যাতে লেখা ছিল, সন্ত্রাসী ইসরায়েল থেকে ফিলিস্তিনকে রক্ষা করুন। যদিও ম্যাচ কমিশনারের নির্দেশে সেটি পরে সরিয়ে নেওয়া হয়।   

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত