Beta
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪

বাসভাড়া কমানোর নামে তামাশা চলছে : যাত্রী কল্যাণ সমিতি

ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

বাসভাড়া কমানোর নামে দেশের জনগণের সঙ্গে সরকার তামাশা করছে বলে অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় দেশের যাত্রী অধিকার প্রতিষ্ঠায় নিয়োজিত সংগঠনটির পক্ষ থেকে এই অভিযোগ করা হয়।

যাত্রী অধিকার রক্ষায় সোচ্চার সংগঠনটি বলছে, ঈদযাত্রায় দেশের বিভিন্ন রুটে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের নৈরাজ্য চলছে। এমন সময়ে দফায় দফায় জ্বালানি তেলের দাম কমানোর হিসাবে বাসভাড়া কমানোর পরিবর্তে প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা বাসভাড়া কমিয়ে দেশের যাত্রীসাধারণের সঙ্গে তামাশা করছে সরকার।

বার্তায় সংগঠনটি আরও বলেছে, ২ দফা জ্বালানি তেলের দাম কমানোর পর সরকার বাসভাড়া প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা কমানোর ঘোষণা দিয়েছে। যা কোনভাবেই কার্যকর করা যাবে না।

এর আগে ২০১১ সালেও একবার সরকার বাসভাড়া ২ পয়সা কমিয়েছিল। ২০১৬ সালে বাসের ভাড়া ৩ পয়সা কমানো হয়। কিন্তু সেসবের সুফল যাত্রীরা পায়নি। সেসব প্রসঙ্গ টেনে যাত্রী কল্যাণ সমিতি বলেছে, ঠিক একইভাবে বাস মালিকদের বিশেষ সুবিধা দিতে এবারের সিদ্ধান্তের সুফল কোনও পরিবহনে মিলবে না। জ্বালানি তেলের দাম কমানোর সুফল শুধু বাস ও অন্যান্য পরিবহন মালিকেরা ভোগ করলেও দেশের জনগণ বঞ্চিত হবে।

বিবৃতিতে যত দ্রুত সম্ভব উল্লেখযোগ্য হারে জ্বালানি তেলের দাম কমিয়ে দেশের সাধারণ নাগরিকের সামর্থ্য বিবেচনায় গণপরিবহনের ভাড়া কমিয়ে আনার দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

বাসভাড়া কমানোর নামে তামাশা চলছে : যাত্রী কল্যাণ সমিতি

বাসভাড়া কমানোর নামে দেশের জনগণের সঙ্গে সরকার তামাশা করছে বলে অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় দেশের যাত্রী অধিকার প্রতিষ্ঠায় নিয়োজিত সংগঠনটির পক্ষ থেকে এই অভিযোগ করা হয়।

যাত্রী অধিকার রক্ষায় সোচ্চার সংগঠনটি বলছে, ঈদযাত্রায় দেশের বিভিন্ন রুটে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের নৈরাজ্য চলছে। এমন সময়ে দফায় দফায় জ্বালানি তেলের দাম কমানোর হিসাবে বাসভাড়া কমানোর পরিবর্তে প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা বাসভাড়া কমিয়ে দেশের যাত্রীদের সঙ্গে তামাশা করছে সরকার।

বার্তায় সংগঠনটি আরও বলেছে, ২ দফা জ্বালানি তেলের দাম কমানোর পর সরকার বাসভাড়া প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা কমানোর ঘোষণা দিয়েছে। যা কোনভাবেই কার্যকর করা যাবে না।

এর আগে ২০১১ সালেও একবার সরকার বাসভাড়া ২ পয়সা কমিয়েছিল। ২০১৬ সালে বাসের ভাড়া ৩ পয়সা কমানো হয়। কিন্তু সেসবের সুফল যাত্রীরা পায়নি। সেসব প্রসঙ্গ টেনে যাত্রী কল্যাণ সমিতি বলেছে, ঠিক একইভাবে বাস মালিকদের বিশেষ সুবিধা দিতে এবারের সিদ্ধান্তের সুফল কোনও পরিবহনে মিলবে না। জ্বালানি তেলের দাম কমানোর সুফল শুধু বাস ও অন্যান্য পরিবহন মালিকেরা ভোগ করলেও দেশের জনগণ বঞ্চিত হবে।

বিবৃতিতে যত দ্রুত সম্ভব উল্লেখযোগ্য হারে জ্বালানি তেলের দাম কমিয়ে দেশের সাধারণ নাগরিকের সামর্থ্য বিবেচনায় গণপরিবহনের ভাড়া কমিয়ে আনার দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist