Beta
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

জ্যাকসের সেঞ্চুরিতে কুমিল্লার রেকর্ড

জ্যাকসকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন মঈন আলী।

বিপিএলে সবসময় রান উৎসব জয়েছে চট্টগ্রামে। এবারের আসরের প্রথম ম্যাচেই হল রেকর্ড। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের উইল জ্যাকস করলেন সেঞ্চুরি। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে খেললেন ৫৩ বলে অপরাজিত ১০৮ রানের ইনিংস।

এই ইনিংসে ভর করে কুমিল্লা গড়েছে ৩ উইকেটে ২৩৯ রানের পাহাড়। বিপিএল ইতিহাসে এটা যৌথ সর্বোচ্চ স্কোর। ২০১৯ সালে রংপুর চট্টগ্রামের বিপক্ষে এই ভেন্যুতেই করেছিল ২৩৯ রান। সবমিলিয়ে বিপিএলের সর্বোচ্চ আটটি স্কোর হয়েছে চট্টগ্রামে।

টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে এটা জ্যাকসের তৃতীয় সেঞ্চুরি। এসএটি-টোয়েন্টিতে গত জানুয়ারিতে প্রিটোরিয়া ক্যাপিটালসের ৪১ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন ইংল্যান্ডের এই ব্যাটার। তার আরেকটি সেঞ্চুরি দ্য হান্ড্রেডে ২০২২ সালে। চট্টগ্রামে ১০৮ রানের ইনিংসটি জ্যাকস খেলেছেন ৫ বাউন্ডারি ও ১০ ছক্কায়।

মঙ্গলবার কুমিল্লার হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলা মঈন আলী ২৪ বলে অপরাজিত ছিলেন ৫৩ রানে। ভ্রমণ ক্লান্তির ছিটেফোঁটাও ছিল না তার ব্যাটিংয়ে।

এছাড়া লিটন দাস খেলেন ৩১ বলে ৬০ রানের ঝড়ো ইনিংস। তবে আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা তাওহিদ হৃদয় ফেরেন প্রথম বলে ০ রানে।

এই ম্যাচ জিততে হলে বিপিএলে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়তে হতো চট্টগ্রামকে। সেই চ্যালেঞ্জের শুরুটা দারুণ করলেও শেষ পর্যন্ত বিফল হয় তারা। মাত্র ৭.৩ ওভারে ৮০ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙ্গতেই পথ হারায় দলটি। শেষ পর্যন্ত ১৬.৩ ওভারে ১৬৬ রানে অলআউট হয়ে ৭৩ রানে হারল চট্টগ্রাম।

জস ব্রাউন ২৩ বলে ৩৬ ও তানজিদ তামিম ২৪ বলে ৪১ রান করে শুরুটা ভালো করেন চট্টগ্রামের পক্ষে। পরের ব্যাটারদের মধ্যে শুধু সৈকত আলি ১১ বলে ৫ ছক্কা ও ১ চারে ৩৬ রান করেন। বাকি ব্যাটাররা কেউই বড় রান করতে পারেননি। তাই নিজের মাঠে শুরুটাও ভালো হয়নি চট্টগ্রামের।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist