Beta
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪
Beta
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪

ভারতে ভোটের আগে গ্রেপ্তার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল
দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল
Picture of সকাল সন্ধ্যা ডেস্ক

সকাল সন্ধ্যা ডেস্ক

দুর্নীতির অভিযোগে ভারতের দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির (আপ) প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে গ্রেপ্তার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)।

দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় বৃহস্পতিবার রাতে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি তাকে গ্রেপ্তার করে।

অরবিন্দ কেজরিওয়ালই ভারতে পদে আসীন থাকা প্রথম মুখ্যমন্ত্রী, যিনি গ্রেপ্তার হলেন।

ভারতের অষ্টাদশ লোকসভা নির্বাচনের ভোট শুরু হতে যখন একমাসেরও কম সময় বাকি, তখনই দুর্নীতির মামলায় গ্রেপ্তার করা হলো কেজরিওয়ালকে।

ভারতের নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ১৯ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে ১ জুন পর্যন্ত ৪৪ দিনের মধ্যে ৭ দফায় (৭ দিন) লোকসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হবে। ভোট গণনা শেষে ফল ঘোষণা করা হবে ৪ জুন।

আবগারি দুর্নীতির এই মামলায় আম আদমি পার্টির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নেতা ও দিল্লির সাবেক উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীষ শিশোদিয়া এক বছরের বেশি সময় ধরে কারাগারে রয়েছেন।

দলটির আরেক নেতা সঞ্জয় সিংও একই মামলায় গত বছরের অক্টোবরে গ্রেপ্তার হন। এছাড়া তেলেঙ্গানার সাবেক মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের মেয়ে কে কবিতাকেও অতি সম্প্রতি গ্রেপ্তার করা হয়।

যদিও অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও তার দল আম আদমি পার্টির পক্ষ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করে এই মামলাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

এই মামলায় অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে মোট ৯ বার সমন পাঠিয়েছিল ইডি। কিন্তু আট বারই হাজিরা এড়িয়ে যান তিনি।

শেষবার পাঠানো সমনে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে বৃহস্পতিবারই ইডি দপ্তরে হাজিরা দিতে বলা হয়। কিন্তু তা না করে কেজরিওয়াল হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। তবে হাইকোর্ট তার আবেদন খারিজ করে দেয়। এরপর সুপ্রিম কোর্টে যান কেজরিওয়াল।

তবে হাইকোর্ট কেজরিওয়ালের আবেদন খারিজ করে দেওয়ার পরই ইডি তৎপরতা শুরু হয়ে যায়। ইডি কর্মকর্তারা বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে হাজির হন কেজরিওয়ালের বাসভবনে, তল্লাাশি চালান তার বাড়িতে।

বাড়িতে ঘণ্টা দুয়েক তল্লাশি চালানোর পর কেজরিওয়ালকে গ্রেপ্তার করে ইডি। শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে।

সূত্র : বিবিসি, এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকা

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত