Beta
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

ভ্রূ দুটো যেন পাখির পালক

চোখের ওপরে পালকের মতো ভ্রূ সৌন্দর্যের জগতে এক নতুন ট্রেন্ড। প্লাক করা ধারালো বা সরু ভ্রূর ফ্যাশন এখন বিগত দিনের। ‘ফেদার ব্রাউ’ নামের এ নতুন সজ্জার ট্রেন্ডের কোমলতা চোখের সৌন্দর্যকে করেছে আরও প্রাকৃতিক, নিবিড়। এই ভ্রূ যেন ক্যানভাসে আঁকা শিল্পীর তুলির আলতো ছোঁয়া। ভিন্ন ভিন্ন মুখের আদলকে দেয় অনন্যমাত্রা।

বলিউডে ‘ফেদার ব্রাউ’

বলিউড সেলেব্রিটিদের কারণে ‘ফেদার ব্রাউ’ ট্রেন্ডটি ইন্সটাগ্রামে বেশ পরিচিতি পেয়েছে। দীপিকা পাড়ুকোন, প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস এবং আলিয়া ভাট কিংবা কৃতি শ্যানন, জানভি কাপুরের মতো দাপুটে অভিনেত্রীদের সজ্জায় ‘ফেদার ব্রাউ’-এর ব্যবহার, একে করে তুলেছে জনপ্রিয়।

বলিউড অভিনেত্রীদের অনেকেই মোটা এবং প্রাকৃতিক ভ্রূ-কে মুখসজ্জার অংশ হিসেবে প্রাধান্য দিচ্ছেন। এসব অভিনেত্রীরা আগের চেয়ে অনেক বেশি ‘এম্পাওয়ার্ড’ চরিত্রেও অভিনয় করছেন। ফলে নারীদের মধ্যে তাদের মোটা ও ‘টেক্সচার্ড ব্রাউ’য়ের নতুন ট্রেন্ড জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। আর জনপ্রিয় হবে নাই বা কেন? ‘ফেদার ব্রাউ’ নারীর মুখের অভিব্যক্তিকে এতোটাই নতুনত্ব দিয়েছে যে, জেন-জির কাছে এর আবেদন উপেক্ষার মতো নয়।

হলিউডও মুগ্ধ

বলিউডের মতো হলিউডের তারকারাও এখন ‘ফেদার ব্রাউ’ জোয়ারে ভাসছেন। কারা ডেলেভিন, লিলি কলিন্স, এবং জেন ডায়ার মতো তারকারা ঘন, প্রাকৃতিক ভ্রূ রাখার মাধ্যমে ট্রেন্ডটিকে জনপ্রিয় করে তুলেছেন।

এই স্টাইলটি পুরানো ধাঁচের ভ্রূ সজ্জার মানদণ্ডকে প্রশ্নের মুখে ফেলেছে। পাশাপাশি মেকি নান্দনিকতার প্রতি ফ্যাশন সচেতনদের আগ্রহ কমিয়ে দিতে ভূমিকা রাখছে।

যত্নের সাথে আঁকা ভুরু থেকে দূরে সরে গিয়ে আরও আরামদায়ক, স্বাভাবিক লুকটাকে জনপ্রিয় করার কারণে তারকারা নারীবাদীদের কাছ থেকেও বাহবা পাচ্ছেন ।

কিন্তু কেন এত জনপ্রিয় হল এই পাখির পালকের মতো এই ভ্রূ সজ্জা?

স্বাচ্ছন্দ্যের মায়াবী আবেশ

এই সজ্জার ভ্রূর জনপ্রিয়তার চাবিকাঠি লুকিয়ে এর অনায়াস সৌন্দর্যে। জোর করে আঁকা ভ্রূ হালকা ব্রাশের কয়েকটা স্ট্রোকেই বদলে যায়। পেয়ে যায় মুক্ত, স্বাভাবিক আকার, যেন চোখের ওপরে ফুটে ওঠে এক জোড়া পালকের অবয়ব। সোশ্যাল মিডিয়ার দুনিয়াতেও এই ট্রেন্ডের জয়জয়কার। নানা রকমের ব্রো জেল, পেন্সিল, আর ব্রাশের ব্যবহারে সৃষ্টি হয়েছে নানা কৌশলের সজ্জা।

বৈচিত্র্যের জয়ধ্বনি

এই প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের পেছনে লুকিয়ে আছে এক গভীর বার্তা, আর তা হলো বৈচিত্র্যের উদযাপন। আজকের দিনের সৌন্দর্য বিষয়ক আন্দোলনের মূল কথা- বৈচিত্র্যময়তা, যেখানে প্রতিটি মানুষ তার নিজস্ব স্বকীয়তায় উজ্জ্বল। আর সেখানেই বাজিমাত করছে পালকের মতো ভ্রূ। এটি শুধুই একটি ট্রেন্ড নয়, বরং নিখুঁত হওয়ার পেছনে না ছুটে, প্রকৃতিপ্রদত্ত চেহারাকে আলিঙ্গনের এক আহ্বান।

সর্বত্রই মানানসই

এই ভ্রূর আরেকটি বৈশিষ্ট্য হলো এর বহুমুখিতা। রাতের পার্টির জমকালো আয়োজন থেকে শুরু করে রোজকার অফিসের রুটিন, সব জায়গাতেই এটি মানায় অনায়াসে। এর আলতো ছোঁয়ায় ফুটে ওঠে এক অলিন্দ আকর্ষণ, অনাবিল স্বস্তি।

নিজেকে গ্রহণ করার উদযাপন

ঘরে বসেই নিজের ভ্রূকে ‘ফেদার ব্রাউ’-তে সজ্জিত করতে পারেন যে কেউ। হাতে তুলে নিন আপনার ব্রাশ, আর মৃদু করে উঁচু করে দিন আপনার ভ্রূর রোম। দেখুন কীভাবে আপনার চোখের ওপরে ফুটে ওঠে এক মায়াবী সৌন্দর্য, এক স্বাভাবিকতার জয়গান। পালকের মতো ভ্রূ শুধুই ট্রেন্ড নয়, এটি নিজেকে ভালোবাসা ও উদযাপনের এক নীরব প্রতিজ্ঞা।

প্রয়োজনীয় উপকরণ

একটি পরিষ্কার স্পুলি ব্রাশ, আপনার পছন্দের আই ব্রাউ পেন্সিল বা কলম, সেটিং জেল। ঘনত্ব অনুযায়ী ভ্রূর ব্রাশ, পেন্সিল বা কলম নির্বাচন করুন। চেহারা ও মুখের বৈশিষ্ট্যের সাথে মানানসই হালকা রং বাছাই করে নিন। ভ্রূর রোমকে তার অবস্থানে ঠিক রাখতে সাহায্য করে ব্রাও জেল। এতে ভ্রূ আরও ঘন মনে হয়।

সাজার ধাপ

ভ্রূ পেন্সিল দিয়ে পছন্দসই আকার আঁকুন। তির্যকভাবে ব্রাশ করুন। পেন্সিল ব্যবহার করে চুলের মতো স্ট্রোকের মাধ্যমে ফাঁকা জায়গা পূরণ করুন। এরপর ন্যাচারাল লুকের জন্য রোমগুলো মিশিয়ে নিন। পালকের মতো দেখাতে জেল দিয়ে ভ্রূ সেট করে নিন।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist