Beta
মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪
Beta
মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪

সাগরে লঘুচাপের পর বৃষ্টির আভাস

লঘুচাপের পর বৃষ্টি নামবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ছবি : সকাল সন্ধ্যা
লঘুচাপের পর বৃষ্টি নামবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ছবি : সকাল সন্ধ্যা
Picture of প্রতিবেদক, সকাল সন্ধ্যা

প্রতিবেদক, সকাল সন্ধ্যা

দেশের বিভিন্ন স্থানের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তাপপ্রবাহের তীব্রতা কমে এসেছে। সূর্য মাথার ওপরে আলো ছড়ালেও গা জ্বালা করা সেই তাপ নেই। বরং, ঢাকার বাতাসে হালকা শীতলতা, সকালের দিকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিও হয়েছে। সেই বৃষ্টির পানি অবশ্য মাটিতে পড়তে না পড়তেই মিলিয়ে গেছে।

চলতি মাসের শেষ দিকে প্রতিবেশী ভারতে রেমাল নামে একটি ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টির আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো তা নিয়ে ধারাবাহিকভাবে প্রতিবেদনও প্রকাশ করছে। ভারতে ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানলে বাংলাদেশে রেশ পড়বে কিনা, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এমন পরিস্থিতিতে দেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, দুদিন পর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ তৈরি হতে পারে।

আবহাওয়াবিদ শাহানাজ সুলতানা সকাল সন্ধ্যাকে বলেন, “আমরা কিন্তু এখনও ঘূর্ণিঝড় বলিনি। লঘুচাপ বলছি এবং এটাও সম্ভাবনা হতে পারে। আর এই লঘুচাপ হতে পারে ২২ অথবা ২৩ মে-র দিকে।

“আগামী বুধবার বিকালের দিকে লঘুচাপ তৈরি হওয়ার পর এর গতিপথ সর্ম্পকে বোঝা যাবে। তার আগে আসলে কিছু বলা যাচ্ছে না।”

তাপপ্রবাহ আপাতত নেই জানিয়ে তিনি বলেন, “তবে জুন নাগাদ আবার সেটা হতে পারে। আর লঘুচাপের পর বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।”

দেশে রেমালের প্রভাব কতটুকু পড়তে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রেমাল আসলেই হবে কিনা সেটিই নিশ্চিত নয়। আর হলেও তা বাংলাদেশে কতটুকু প্রভাব ফেলবে সে আলোচনা বহু পরের।

তবে ভারতে রেমাল নিয়ে বেশ শঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে। সংবাদ মাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, মে মাসের শেষ সপ্তাহে পশ্চিমবঙ্গ বা বাংলাদেশ উপকূলে আঘাত হানতে পারে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়। ফলে এসব অঞ্চলের উপকূলবর্তী এলাকায় এর প্রভাব পড়তে পারে। এরই মধ্যে কোথাও কোথাও প্রবল বৃষ্টির খবরও পাওয়া গেছে।

হাওয়া অফিসের বরাত দিয়ে নিউজ১৮ জানিয়েছে, বুধবার দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হতে যাচ্ছে। দক্ষিণ আন্দামানসহ বিভিন্ন স্থানে এরই মধ্যে শুরু হয়েছে বৃষ্টি।

সোমবার সন্ধ্যায় দেওয়া পূর্বাভাসে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও আশপাশের এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। পরবর্তীতে এটি ঘণীভূত হতে পারে।

রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে। হতে পারে বজ্রসহ বৃষ্টিও। সেইসঙ্গে কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টিরও সম্ভাবনা রয়েছে।

পাশাপাশি রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দিন-রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যান্য জায়গার তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। গত ৩১ মার্চ থেকে দেশে শুরু হয়ে তাপপ্রবাহ, চলে ৬ মে পর্যন্ত। এ অবস্থায় দফায় দফায় হিট অ্যালার্ট জারি করে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত