Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪
Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪

সোনার দাম : ১৭৫০ টাকা কমিয়ে বাড়াল ২৯১৬ টাকা

প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি
Picture of বিশেষ প্রতিনিধি, সকাল সন্ধ্যা

বিশেষ প্রতিনিধি, সকাল সন্ধ্যা

দেশের বাজারে অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে সোনার দাম। শুক্রবার থেকে প্রতি ভরি সবচেয়ে ভালো মানের (২২ ক্যারেট) সোনা কিনতে দিতে হবে ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৪ টাকা। এটিই এখন পর্যন্ত সোনার সর্বোচ্চ দাম।

গত মঙ্গলবার এই মানের সোনার দাম ভরিতে ১ হাজার ৭৫০ টাকা কমানো হয়েছিল। সেই দাম কার্যকর হয় বুধবার। এর একদিন পর বৃহস্পতিবার রাতে আবার সোনার দাম ভরিতে ২ হাজার ৯১৬ টাকা বাড়ানোর ঘোষণা দেয় স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতি (বাজুস)।

শুক্রবার থেকে সারা দেশে এই দরে বিক্রি হবে মূল্যবান এই ধাতু। অন্যান্য মানের সোনার দরও একই হারে বাড়ানো হয়েছে।

এর আগে ২২ ক্যারেটের সোনার ভরি সর্বোচ্চ উঠেছিল ১ লাখ ১২ হাজার ৯০৮ টাকায়; মঙ্গলবার পর্যন্ত এই দরে বিক্রি হয়। বুধবার থেকে মাত্র দুই তা ১ হাজার ৭৫০ টাকা কমে ১ লাখ ১১ হাজার ১৫৮ টাকা হয়।

বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমানের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে বলা হয়, স্থানীয় বাজারে তেজাবি স্বর্ণের (পিওর গোল্ড) দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে সোনার নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। শুক্রবার থেকে নতুন দাম কার্যকর হবে।

এর আগে গত ৬ মার্চ সবচেয়ে ভালো মানের সোনার দাম ভরিতে ২ হাজার ১১৬ টাকা বাড়ানো হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম খানিকটা কমেছে। তবে আগের দিন বুধবার বাড়তে বাড়তে প্রতি আউন্স (৩১.১০৩৪৭৬৮ গ্রাম, ২.৬৫ ভরি) সোনার দাম ২ হাজার ২০০ ডলারে ছাড়িয়ে গিয়েছিল।

বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯টায় ৩৩ ডলার ২৯ সেন্ট বা ১ দশমিক ৫১ শতাংশ কমে ২ হাজার ১৭০ ডলার ৩৯ সেন্টে নেমে এসেছে।

বাজুসের ঘোষণা করা নতুন দাম অনুযায়ী, শুক্রবার থেকে সবচেয়ে ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনা ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৪ টাকায় বিক্রি হবে। ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনা ১ লাখ ৮ হাজার ৮৮৩ টাকায়, ১৮ ক্যারেটের সোনা ৯৩ হাজার ৩১২ টাকায় এবং সনাতন পদ্ধতির সোনা ৭৭ হাজার ৭৯৯ টাকায় বিক্রি হবে।

বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনা ১ লাখ ১১ হাজার ১৫৮ টাকায় বিক্রি হয়। ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনা ১ লাখ ৬ হাজার ১৪২ টাকায়, ১৮ ক্যারেটের সোনা ৯০ হাজার ৯৭৯ টাকায় এবং সনাতন পদ্ধতির সোনা ৭৫ হাজার ৮১৬ টাকায় বিক্রি হয়।

হিসাব করে দেখা যায়, ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম বেড়েছে ২ হাজার ৯১৬ টাকা, ২১ ক্যারেটের দাম বেড়েছে ২ হাজার ৭৪১ টাকা। এছাড়া ১৮ ক্যাটের সোনার ভরি ২ হাজার ৩৩৩ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম বেড়েছে ১ হাজার ৯৮৩ টাকা।

গতবছর দেশের বাজারে সোনার দাম দফায় দফায় বেড়েছিল। ফলে ভালো মানের প্রতি ভরি সোনার দাম লাখ টাকা ছাড়িয়ে যায়।

বাজুসের তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০২৩ সালে সব মিলিয়ে ২৯ বার সোনার দাম সমন্বয় করা হয়েছে। এর মধ্যে ১১ বার দাম কমানো ও ১৮ বার বাড়ানো হয়েছে।

২০২২ সালের জানুয়ারিতে হলমার্ক করা ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার দাম ছিল ৮৮ হাজার ৪১৩ টাকা। এরপর কয়েক দফা দাম বাড়ার পর গত বছরের ২১ জুলাই দেশের বাজারে প্রথমবারের মতো প্রতি ভরি সোনার দাম লাখ টাকা ছাড়িয়ে যায়।

মাঝে কমে লাখ টাকার নিচে নেমে এসেছিল। ১৬ অক্টোবর বেড়ে ফের লাখ টাকা ছাড়ায়।

মূলত করোনা মহামারীর পর বিশ্বব্যাপী সোনার দামে অস্থিরতা দেখা দেয়। তখন ‘সেফ হ্যাভেন’বা ‘নিরাপদ বিনিয়োগ’ হিসেবে সোনাকেই বেছে নেওয়ার প্রবণতা বাড়ে।

সোনার দাম বাড়ানো হ‌লেও অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে রুপার দাম। ক্যাটাগরি অনুযায়ী বর্তমানে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপার দাম দুই হাজার ১০০ টাকা, ২১ ক্যারেটের দাম ২ হাজার ৬ টাকা, ১৮ ক্যারেটের দাম ১৭১৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রুপার দাম ১ হাজার ২৮৩ টাকা।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত