Beta
সোমবার, ১৭ জুন, ২০২৪
Beta
সোমবার, ১৭ জুন, ২০২৪

গ্র্যামি জয়ী টেইলর সুইফট কেন বারবার আলোচনায়

trump vs swift
Picture of সৈয়দ ফরহাদ

সৈয়দ ফরহাদ

বছরের সেরা পপ ভোকাল অ্যালবাম এবং সেরা অ্যালবামের দুইটি মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কারই জিতে নিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের আলোচিত সংগীত তারকা টেইলর সুইফট। 

যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে স্থানীয় সময় রোববার বিশ্ব সংগীতের অন্যতম সম্মাননা অনুষ্ঠান গ্র্যামিতে ‘মিডনাইটস’ অ্যালবামের জন্য তিনি এই পুরস্কার পান। এই অ্যালবামের গানগুলোর লিরিকস এবং সুরের স্রষ্টাও টেইলর সুইফট। 

আরেক জনপ্রিয় গায়িকা মাইলি সাইরাস ‘ফ্লাওয়ার’ অ্যালবামের জন্য পেয়েছেন ‘রেকর্ড অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কার। সেরা একক পারফরম্যান্সের পুরস্কারও জিতেছেন তিনি। 

বার্বি সিনেমার ‘হোয়াট ওয়াজ আই মেইড ফর’ শিরোনামের গানটি পেয়েছে বছরের সেরার পুরস্কার। গানটি গেয়ে বছরজুড়ে আলোচনায় ছিলেন বিলি ইলিশ।

সেরা ‘আরঅ্যান্ডবি’ (রিদম অ্যান্ড ব্লুজ) গানের ক্যাটাগরিতে ‘স্নুজ’ গানটির জন্য সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে পুরস্কার জিতেছেন গায়ক এসজেডএ। সেরা প্রগ্রেসিভ ‘আরঅ্যান্ডবি’ অ্যালবামের পুরস্কারও ঘুরে তুলেছেন এই কণ্ঠশিল্পী।

বছরের সেরা ‘কান্ট্রি অ্যালবাম’ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে লেনি উইলসনের ‘বেল বটম কান্ট্রি’। ভিক্টোরিয়া মনে জিতেছেন নতুন কণ্ঠশিল্পী হিসেবে সেরার সম্মাননা। আর হিপহপ শিল্পী কিলার মাইক ‘মাইকেল’ অ্যালবামের জন্য আগেই ‘কিল’ করেছেন কোটি শ্রোতার হৃদয়। যেটি সেরা র‌্যাপ অ্যালবাম হিসেবে জিতে নিয়েছে গ্র্যামি ২০২৪। 

সেরা রক গান হিসেবে গ্র্যামির পুরস্কারটি ছিনিয়ে নিয়েছে ব্যান্ড বয়জিনিয়াস এর ‘নট স্ট্রং এনাফ’ গানটি। সেরা রক পারফরম্যান্সের পুরস্কারও গেছে তাদেরই ঘরে। আর বেস্ট রক অ্যালবামের পুরস্কার জিতেছে ব্যান্ড প্যারামোর-এর ‘দিস ইজ হোয়াই’ অ্যালবামটি। 

তবে বেস্ট মেটাল পারফরম্যান্স পুরস্কারটি নিজেদের করে নিয়েছে মেটালিকা ব্যান্ড। ‘সেভেনটি টু রিজন’ গানটির জন্য এই পুরস্কার পেয়েছে কিংবদন্তীর কাতারে চলে যাওয়া এই ব্যান্ডটি।

সব তারার আলো কেড়ে নেওয়া সুইফট

সংগীত বিশ্বে সর্বোচ্চ পুরস্কার হিসেবে পরিচিত গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে অনেক কণ্ঠশিল্পীর উপস্থিতিতেই সব আলো যেন কেড়ে নিয়েছিলেন টেইলর সুইফট। গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড ২০২৪-এর মোট ৬টি ক্যাটাগরিতে নমিনেশন পেয়েছিলেন এই শিল্পী।

তবে ৩৪ বছরের সুইফট এবার বিশেষভাবে আলোচিত ছিলেন আরও একটি কারণে। ‘অ্যালবাম অব দ্য ইয়ার’ ক্যাটাগরিতে এবারসহ মোট চারবার পুরস্কার জিতে রীতিমতো ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন এই শিল্পী। 

২০২৩ সালেও শ্রোতাদের মনযোগের কেন্দ্রে ছিলেন এই শিল্পী। মিউজিক স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম স্পটিফাই ২০২৩ সালে ‘মোস্ট স্ট্রিমড আর্টিস্ট’দের যে তালিকা প্রকাশ করে তাতে সবার উপরে ছিলো টেইলর সুইফটের নাম।

কিন্তু স্পটিফাইয়ের সঙ্গে সুইফট এর যাত্রা সবসময় সুখকর ছিল না। ১০ বছর আগে গানের স্বত্ব নিয়ে স্পটিফাইয়ের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়েছিলেন এই আমেরিকান শিল্পী। ২০১৪ সালে তার সব গান তিনি স্পটিফাই থেকে তুলেও নিয়েছিলেন। 

কিন্তু কী সেই অভিযোগ?

স্পটিফাই প্ল্যাটফর্মে অর্থ না দিয়েও আছে গান শোনার সুযোগ। সেক্ষেত্রে শ্রোতাদের একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ বিজ্ঞাপন এর বেশি এড়িয়ে (স্কিপ) যাওয়ার সুযোগ থাকেনা। আর অন্যদিকে যারা অর্থের বিনিময়ে সাবস্ক্রাইব করেন তারা বিজ্ঞাপন এড়িয়ে গিয়ে শুনতে পারেন সব গান। 

সুইফট এর অভিযোগ ছিল- ফ্রি সাবস্ক্রাইবারদের এই সুযোগ দিয়ে শিল্পীদের বঞ্চিত করছে স্পটিফাই। এমনকি স্পটিফাইয়ের রয়্যালিটির পরিমাণ নিয়েও ক্ষোভ ছিল তার। 

রাজনীতি, ট্রাম্প ও টেইলর সুইফট

ইদানিং রাজনৈতিক কারণেও খবর হচ্ছেন সুইফট। পলিটিক্স ও বিনোদন বিষয়ক পত্রিকা রোলিং স্টোন ম্যাগাজিন জানাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নাকি এবার তার বিরুদ্ধে আঁটঘাট বেঁধে নেমেছেন। ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিদের বরাত দিয়ে ম্যাগাজিনটি তাদের এক প্রতিবেদনে লিখেছে, ডেমোক্র্যাটপন্থি গায়িকা সুইফটের প্রকাশ্যে বাইডেন সমর্থন নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন ট্রাম্প। আর তাই যুক্তরাষ্ট্রের আগামী নির্বাচনে তিনি এই তারকার বিরুদ্ধে এক ‘হোলি ওয়ার’ এ নামতে যাচ্ছেন। 

আসলে ট্রাম্পের এই উদ্বেগের শুরু সেই ২০২০ সালে, যখন টেইলর সুইফট তার গান ‘অনলি দ্য ইয়াং’ রিলিজ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এই গানটিকে রাজনৈতিকভাবে অন্যতম প্রভাব বিস্তারকারী গান বলা হচ্ছে। রিপাবলিকান ট্রাম্প এর নির্বাচনে হারার পেছনে এই গানেরও নাকি খানিক প্রভাব রয়েছে! কারণ আমেরিকান জেন-জি জেনারেশনের একটি বড় অংশ সুইফটের শ্রোতা।

তারকা-তারকা যুদ্ধ

মেগা তারকা সুইফট অবশ্য অন্য তারকাদের সাথেও বিবাদে জড়িয়ে খবরের জন্ম দিয়েছেন।    

গণমাধ্যম সূত্রে বলছে, ২০০৯ সালে এমটিভি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে টেইলর সুইফটকে মঞ্চে কথা বলার সুযোগ না দিয়ে র‌্যাপার কানি ওয়েস্ট অপমানজনক মন্তব্য করেন। এরপর এই দুই তারকার মধ্যে শুরু হয় দ্বন্দ্ব। পরে কানি ক্ষমা চাইলেই ২০১৬ সালে আবারও টেইলর সুইফট নিয়ে করেন আপত্তিকর মন্তব্য।

এছাড়া ২০১৪ সালে আমেরিকান আরেক সিংগার-সং রাইটার কেটি পেরির সাথে তার দ্বন্দ্ব মিডিয়ায় বেশ চর্চিত ছিল।   

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত