Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

গ্রিন-বীরত্বের পর বোলিংয়ে বাজিমাত অস্ট্রেলিয়ার

নাথান লায়ন পেয়েছেন ৪ উইকেট। ছবি: টুইটার
নাথান লায়ন পেয়েছেন ৪ উইকেট। ছবি: টুইটার

রোমাঞ্চকর একটি দিন কাটল বেসিন রিজার্ভে। নিউজিল্যান্ডকে ১৭৯ রানে অলআউট করে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা অস্ট্রেলিয়া ৪ রান তুলতে হারায় ২ উইকেট। এরপরও ওয়েলিংটন টেস্টের দ্বিতীয় দিনটি সফরকারীদের। ক্যামেরন গ্রিনের ব্যাটিং বীরত্বের পর দুর্দান্ত বোলিংয়ে চালকের আসনে অস্ট্রেলিয়া।

প্রথম দিনেই সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন গ্রিন। শুক্রবার (১ মার্চ) দ্বিতীয় দিনে ইনিংসটা আরও বড় করলেন। ডাবল সেঞ্চুরির পথেও ছিলেন। কিন্তু সঙ্গীর অভাবে ক্যারিয়ারের প্রথম ‘ডাবল’ পাওয়া হয়নি এই ব্যাটারের। অপরাজিত ছিলেন ১৭৪ রানে। তার অসাধারণ ব্যাটিংয়ে ৩৮৩ রানে প্রথম ইনিংস শেষ হয় অস্ট্রেলিয়ার। এরপর বোলিংয়ে দাঁড়াতেই দেয়নি কিউইদের। ৪৩.১ ওভারে স্বাগতিকদের অলআউট করে ১৭৯ রানে।

নিউজিল্যান্ডকে ফলোঅন করার সুযোগ ছিল অস্ট্রেলিয়ার। তবে সেটি না করে শেষ বিকেলে নিজেরাই ব্যাটিংয়ের নামার সিদ্ধান্ত নেয়। অধিনায়ক প্যাট কামিন্সের সিদ্ধান্তটা কাজে লাগেনি। কারণ শুরুতেই হারিয়েছে স্টিভেন স্মিথ (০) ও মার্নাস লাবুশেনের (২) উইকেট। সফরকারীরা দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে ২ উইকেটে ১৩ রানে। তাতে লিড দাঁড়িয়েছে ২১৭ রানের।

প্রথম ইনিংসে ২৬৭ রানে নবম উইকেট পড়েছিল অস্ট্রেলিয়ার। দশম উইকেটে জশ হ্যাজেলউডকে নিয়ে ১১৬ রানের জুটিতে রেকর্ড গড়েছেন গ্রিন। টেস্ট ইতিহাসের শেষ উইকেটে ১০০ ছাড়ানো জুটি আছে ২৮টি। এই ম্যাচের আগে সবশেষ কীর্তিটি দেখা গিয়েছিল নিউজিল্যান্ডের ম্যাট হেনরি ও আজাজ প্যাটেলের জুটিতে (১০৪ রান)।

গ্রিন ও হ্যাজলউডের জুটি দশম উইকেটে অস্ট্রেলিয়ার চতুর্থ সর্বোচ্চ। সবার ওপরে ফিল হিউজ ও অ্যাশটন অ্যাগারের জুটি। ২০১৩ সালের অ্যাশেজে ট্রেন্টব্রিজ টেস্টে দশম উইকেটে ১৬৩ রান করেছিলেন তারা।

২২ রান করা হ্যাজেলউডের বিদায়ে ভাঙে তাদের জুটি। গ্রিন খেলেন হার না মানা ১৭৪ রানের ইনিংস। ২৭৫ বলের ইনিংসটি তিনি সাজান ২৩ বাউন্ডারি ও ৫ ছক্কায়। নিউজিল্যান্ডের ম্যাট হেনরি ৭০ রানে পেয়েছেন ৫ উইকেট।

সফরকারীদের অলআউট করে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই বিপদে পড়ে নিউজিল্যান্ড। ২৯ রানে হারায় টপ অর্ডারের পাঁচ ব্যাটারকে। দুই অঙ্কের ঘরে যেতে পারেননি টম ল্যাথাম (৫), উইল ইয়ং (৯), কেন উইলিয়ামসন (০) ও রাচিন রবীন্দ্র (০)। পাঁচে নামা ড্যারেল মিচেলও (১১) ব্যর্থ।

এমন ব্যাটিং বিপর্যয়ের পরও কিউইদের রান ১৭৯ পর্যন্ত গিয়েছে গ্লেন ফিলিপসের চমৎকার ইনিংসে। এই ব্যাটার খেলেছেন দলীয় সর্বোচ্চ ৭১ রানের ইনিংস। অবদান রেখেছেন ম্যাট হেনরি (৪২) ও টম ব্লান্ডেল (৩৩)।

কিউইদের গুঁড়িয়ে দেওয়ার পথে সবচেয়ে সফল বোলার নাথান লায়ন। ডানহাতি স্পিনার ৪৩ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। হ্যাজেলউড পেয়েছেন ২ উইকেট।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist