Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

মিলন রোমানের পর অলিম্পিকে ঝুমা

প্যারা অলিম্পিক গেমসে সরাসরি খেলার সুযোগ পেলেন ঝুমা আক্তার। ছবি: সংগৃহীত।
প্যারা অলিম্পিক গেমসে সরাসরি খেলার সুযোগ পেলেন ঝুমা আক্তার। ছবি: সংগৃহীত।

অলিম্পিক গেমসে বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে ১৯৮৪ সাল থেকে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে যখন অ্যাথলেটরা সরাসরি যোগ্যতা অর্জন করে অলিম্পিকে খেলতে যান, তখন বাংলাদেশ তাকিয়ে থাকে ওয়াইল্ড কার্ড নামের এক ধরনের ‘দাক্ষিণ্যের’ ওপর। যে ‘দাক্ষিণ্য’ দিয়ে থাকে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি)।  

সেই দাক্ষিণ্য অর্থাৎ ওয়াইল্ড কার্ড ছাড়া সরাসরি নিজের যোগ্যতায় অলিম্পিকে খেলেছেন- গলফার সিদ্দিকুর রহমান ও আর্চার রোমান সানা।

তবে এর আগে ২০১০ সালে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত যুব অলিম্পিক গেমসে সরাসরি খেলার সুযোগ পান আর্চার ইমদাদুল হক মিলন। ২০০৯ সালে ইন্দোনেশিয়ার বালিতে এশিয়ান যুব আর্চারির বাছাই টুর্নামেন্টের রিকার্ভ এককে সোনা জিতে যুব অলিম্পিকের চূড়ান্তপর্বে সরাসরি খেলার সুযোগ পান তিনি।

মিলন খেলেছেন যুব অলিম্পিকে। রোমান মূল অলিম্পিকে। এবার প্যার অলিম্পিক গেমসে সরাসরি খেলার সুযোগ পেলেন ঝুমা আক্তার। গত সপ্তাহে দুবাইয়ে শেষ হওয়া প্যারা অলিম্পিক কোটা টুর্নামেন্টে ব্রোঞ্জ জিতেছেন বাংলাদেশের কম্পাউন্ড আর্চার ঝুমা আক্তার। ব্রোঞ্জ জেতায় চলতি বছর প্যারা অলিম্পিকে খেলা নিশ্চিত করেছেন তিনি। সামার অলিম্পিকের এক মাস পর প্যারিসে এ বছর আগস্ট মাসে অনুষ্ঠিত হবে প্যারা অলিম্পিক।

দেশে ফেরার পর সংবর্ধিত প্যারা আর্চার ঝুমা আক্তার (মাঝে)। শনিবার ঢাকা বিমানবন্দরে। ছবি: সংগৃহীত।

প্যারা অলিম্পিকে বাংলাদেশ প্রথম অংশ নেয় ২০০৪ সালে। সেবার ম্যারাথনে অংশ নেন খান মাকসুদ। এরপর আন্তর্জাতিক প্যারা অলিম্পিক কমিটির (আইপিসি) নিষেধাজ্ঞার কারণে বাংলাদেশ অংশ নিতে পারেনি ২০১২, ২০১৬ ও ২০২০ প্যারা অলিম্পিক গেমসে। সেই নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আবারও খেলার মাঠে ফিরেছেন বাংলাদেশের অ্যাথলেটরা। আর ফিরেই এমন দুর্দান্ত সাফল্য পেলেন আর্চার ঝুমা।

মূল অলিম্পিকের পাশাপাশি বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের জন্য হয় দুটি অলিম্পিক গেমস। একটি স্পেশাল অলিম্পিকস। আরেকটি প্যারা অলিম্পিক। বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীরা খেলে থাকেন স্পেশাল অলিম্পিকসে। প্যারা অলিম্পিক শারীরিক বিশেষ চাহিদা সম্পন্নদের জন্য। বাংলাদেশ স্পেশাল অলিম্পিকে পদক জিতলেও প্যারা অলিম্পিকে এখনও পদক পায়নি।

নিজের যোগ্যতায় অলিম্পিকে জায়গা করে নেওয়া ঝুমা স্বপ্ন দেখছেন অলিম্পিকে পদকেরও। দুবাই থেকে শনিবার বাংলাদেশে এসেছে প্যারা আর্চারি দল। ঝুমা ঢাকা বিমানবন্দরে নেমে অলিম্পিক স্বপ্নের কথা শোনালেন, “আমার আত্মবিশ্বাস ছিল অলিম্পিকে জায়গা করে নিতে পারব। এখন লক্ষ্য আগামী কয়েক মাস অনুশীলন করে অলিম্পিকে পদকের চেষ্টা করা।”

বাংলাদেশ প্যারা আর্চারি এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহসান উল্লাহ ঝুমার প্রতি আরও গুরুত্ব দেওয়ার কথা জানিয়ে বলেন, “শারীরিক প্রতিবন্ধকতা নিয়েও ঝুমা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের সুনাম বৃদ্ধি করেছে। অলিম্পিকের মঞ্চে তার পদক জয়ের জন্য আমরা সব রকমের সহযোগিতা করব।”

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist