Beta
বুধবার, ২২ মে, ২০২৪
Beta
বুধবার, ২২ মে, ২০২৪

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংবাদ সম্মেলন বর্জন করল সাংবাদিকরা

বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের সংবাদ সম্মেলন বর্জন করে বেরিয়ে আসে সাংবাদিকরা।
বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের সংবাদ সম্মেলন বর্জন করে বেরিয়ে আসে সাংবাদিকরা।
Picture of প্রতিবেদক, সকাল সন্ধ্যা

প্রতিবেদক, সকাল সন্ধ্যা

প্রবেশের সুযোগ অবারিত না করে বাংলাদেশ ব্যাংক সংবাদ সম্মেলন শুরু করায় তা বর্জন করেছে সাংবাদিকরা।  

সাংবাদিকদের শর্ত ছিল আগের মতো অবাধ প্রবেশের সুযোগ দিতে হবে, তাহলেই তারা সংবাদ সম্মেলন কাভার করবে, অন্যথায় বর্জন করবে। বুধবার (৮ মে) দুপুর আড়াইটায় সংবাদ সম্মেলন শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই উপস্থিত সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়।

কিন্তু সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত দিতে পারেননি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর হাবিবুর রহমান। একারণে সম্মেলন শুরুর কয়েক মিনিটের মাথায় তা বর্জন করে বেরিয়ে আসে ব্যাংক বিট কাভার করা সাংবাদিকরা।

মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন হচ্ছিল।

সংবাদ সম্মেলনে ডেপুটি গভর্নর হবিবুর রহমান সাংবাদিকদের বার্তা গভর্নরের কাছে পৌঁছে দেবেন বলে আশ্বাস দেন। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে এখন থেকে প্রতি সপ্তাহে একটি করে প্রেস ব্রিফিং হবে। সেখানে চার ডেপুটি গভর্নর সাংবাদিকদের সব প্রশ্নের জবাবও দেবেন।

তাতেও সাংবাদিকরা সংবাদ সম্মেলন কাভার করতে রাজি হয়নি। এ তথ্য উপস্থিত সব গণমাধ্যমকর্মীদের পক্ষে ইকোনোমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম ডেপুটি গভর্নর ও বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মেজবাউল হককে জানান। এর পরপরই উপস্থিত সাংবাদিকরা অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করতে শুরু করে।

এর আগেও দেশের ব্যাংক ও আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংকে নির্বিঘ্নে প্রবেশাধিকারের দাবি জানিয়েছিল ব্যাংক বিটের সাংবাদিকরা। তাদের দাবির সঙ্গে একমত পোষণ করে বিভিন্ন সংগঠন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিকদের অবাধে প্রবাশাধিকার না দেওয়ায় ইতোমধ্যে নিন্দা জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি), নিউজপেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব) ও সম্পাদক পরিষদ, ইআরএফ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফউজে)।

সংগঠনগুলো বলছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে এমন অলিখিত নিষেধাজ্ঞা স্বাধীন সাংবাদিকতা, গণতন্ত্র এবং মৌলিক ও সাংবিধানিক অধিকারের পরিপন্থী। 

সংবাদ সম্মেলন থেকে বের হয়ে সাংবাদিকরা বলেন, সন্তোষজনক জবাব না পেয়ে সংবাদ সম্মেলনটি বর্জন করেছে তারা।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত