Beta
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

নাজমুল-মিরাজদের নেতৃত্বে না দেখে অবাক খালেদ মাহমুদ  

বাংলাদেশ দলে নতুন অধিনায়কের তালিকায় তিন ফরম্যাট মিলিয়ে লিটন দাস, মেহেদি হাসান মিরাজ ও নাজমুল হোসেন শান্তর নাম ঘুরছে। ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর নাজমুল হোসেন শান্তকে অধিনায়কত্ব দেওয়ায় বাংলাদেশ ক্রিকেটে এ বিষয়টি জোড় হাওয়া পায়। কিন্তু বিপিএলে এর উল্টোটা হওয়ায় অবাক হয়েছেন বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। 

তবে বিপিএল নতুন নেতৃত্বের খোঁজ দিতে পারেনি এখনও। ফরচুন বরিশালে তামিম ইকবাল, সিলেট স্ট্রাইকার্সে মাশরাফি বিন মর্তুজা অধিনায়কত্ব করছেন। অথচ এ দুই দলে মিরাজ ও শান্ত আছেন। সর্বশেষ জাতীয় দলের জার্সিতে তিন ফরম্যাটে অধিনায়কত্ব করেছেন শান্ত।

নিজের বিস্ময় প্রকাশ করে বিপিএলে দুর্দান্ত ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ বলেছেন, ‘‘আমিও একটু অবাক হয়েছি শান্ত ও মিরাজ নেতৃত্বে না দেখে। শান্ত এই মুহূর্তে জাতীয় দলের অধিনায়ক। মাশরাফি অবশ্যই ভালো লিডার কিন্তু সামনের দিকে তাকালে নতুনদের এই সুযোগটা দিতে পারতো। ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো হয়তো অন্য কিছু ভেবেছে তাই দেয়নি। কিন্তু আমি থাকলে ওদেরকেই নেতৃত্ব দিতাম।’’

বিপিএল শুরুর আগে ফরচুন বরিশালে মিরাজের অধিনায়ক হওয়ার বিষয়টি একরকম নিশ্চিতই ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে মালিকপক্ষের সিদ্ধান্তে তামিম দায়িত্ব পায়। অথচ ঢাকায় বিপিএল প্রথম পর্বের এক ম্যাচ শেষে তামিম নিজেই নেতৃত্ব উপভোগ করছেন না বলে জানিয়েছিলেন।

একই অবস্থা সিলেট স্ট্রাইকার্সেও। দলটির মালিক ফিটনেসহীন মাশরাফিকে মাঠে পেলেই খুশি। তাই অধিনায়কত্বও দিয়েছিলেন। মাশরাফির অবর্তমানে দলের সহঅধিনায়ক করা হয়েছে মোহাম্মদ মিঠুনকে। জাতীয় দলে যার সবশেষ ম্যাচ ২০১৯ সালে। টপঅর্ডার এই ব্যাটারের সহসা জাতীয় দলে ফেরার সম্ভাবনাও কম। 

এই ব্যাপারে সাকিব আল হাসান ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাতেই হয়। সাকিব নিজে থেকেই নেতৃত্বের চাপ নিতে চান না। তাই ওই দলে নুরুল হাসান সোহান অধিনায়ক। আর কুমিল্লা শুরুতেই জানিয়েছে ইমরুল কায়েসের বদলে এবার তাদের অধিনায়ক লিটন দাস।

খালেদ মাহমুদ অবশ্য বিস্ময় প্রকাশ করলেও তার দলে নতুন নেতৃত্ব পাওয়ার সঠিক প্রক্রিয়া মানা হয়নি। দুর্দান্ত ঢাকা দলে আছেন তাসকিন আহমেদ। জাতীয় দলের অধিনায়ক হওয়ার তালিকায় সবশেষ নামটি তার। কিন্তু ঢাকার নেতৃত্বে আছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

মোসাদ্দেক আবাহনীর নিয়মিত অধিনায়ক। ওই দলের কোচ খালেদ মাহমুদ। তাই সমীকরণ মেলানো কঠিন নয়। মোসাদ্দেক এখনও জাতীয় দলে ওয়ানডে ফরম্যাটের বিবেচনায় আছেন। টি-টোয়েন্টির পুলেও তাকে রাখা হয়েছে। তবুও নতুন নেতৃত্ব হিসেবে তাসকিনকে দায়িত্ব দিতেই পারতো ঢাকা।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist