Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪
Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪

তিন মাস কমার পর বাড়ল এলপিজির দাম

ss-lpg gas-03-12-23
Picture of বিশেষ প্রতিনিধি, সকাল সন্ধ্যা

বিশেষ প্রতিনিধি, সকাল সন্ধ্যা

টানা তিন মাস কমার পর জুলাইয়ে বেড়েছে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসের (এলপিজি) দাম। এ দফায় ভোক্তাপর্যায়ে ১২ কেজিতে দাম ৩ টাকা বাড়িয়েছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকেই নতুন দর কার্যকর হয়েছে। জুলাইয়ের জন্য প্রতি ১২ কেজির সিলিন্ডারের দর নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ৩৬৬ টাকা। জুনে যেটার দাম ছিল ১ হাজার ৩৬৩ টাকা।

ঢাকার কারওয়ান বাজারে বিইআরসি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন দর জানানো হয়। সংস্থাটি প্রতি মাসেই এলপিজির দাম নির্ধারণ করে। এর আগে তিন মাস টানা কমেছিল এলপিজির দাম। গত মাসে ১২ কেজির সিলিন্ডারে কমানো হয়েছিল ৩০ টাকা। আগের মাসে কমানো হয়েছিল ৪৯ টাকা। আর এপ্রিলে কমানো হয়েছিল ৪০ টাকা।

বিইআরসির চেয়ারম্যান নূরুল আমিন নতুন দর ঘোষণা করে জানান, এলপিজির আমদানি মূল্য অপরিবর্তিত থাকলেও ডলারের দাম ঊর্ধ্বমুখী থাকায় দাম কিছুটা বেড়েছে।

জুলাই মাসে সাড়ে ৫ কেজি এলপিজি সিলিন্ডার ৬২৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা আগে ছিল ৬২৫ টাকা। ১২ কেজির এলপিজির সিলিন্ডার ১ হাজার ৩৬৬ টাকা হয়েছে, যা আগে ১৩৬৩ টাকা ছিল।

১৫ কেজির সিলিন্ডারের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ৭০৮ টাকা।

একইভাবে ১৬ কেজি, ১৮ কেজি, ২০ কেজি, ২২ কেজি, ২৫ কেজি, ৩০ কেজি, ৩৩ কেজি, ৩৫ কেজি এবং ৪৫ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ঠিক করা হয়েছে। গৃহস্থালী কাজে সাধারণত ১২ কেজি সিলিন্ডার বেশি ব্যবহৃত হয়।

বাসাবাড়িতে ব্যবহৃত রেটিকুলেটেড পদ্ধতির গ্যাসের দাম প্রতিকেজি ১১০ টাকা ০৩ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা আগের মাসে ১০৯ টাকা ৭২ পয়সা ছিল।

যানবাহনে ব্যবহৃত অটোগ্যাসের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৬২ টাকা ৭০ পয়সা, যা আগে ছিল ৬২ টাকা ৫৩ পয়সা।

২০২১ সালের এপ্রিল মাস থেকে এলপিজির দাম নির্ধারণ করে আসছে বিইআরসি। এলপিজি তৈরির মূল উপাদান প্রোপেন ও বিউটেন বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা হয়। প্রতি মাসে এলপিজির এ দুই উপাদানের মূল্য প্রকাশ করে সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠান আরামকো। এটি সৌদি কার্গো মূল্য (সিপি) নামে পরিচিত।

এই সৌদি সিপিকে ভিত্তিমূল্য ধরে দেশে এলপিজির দাম সমন্বয় করে বিইআরসি। আমদানিকারক কোম্পানির চালান (ইনভয়েস) মূল্য থেকে গড় করে পুরো মাসের জন্য ডলারের দাম হিসাব করে বিইআরসি।

বিইআরসির নতুন দর অনুযায়ী, বেসরকারি এলপিজির মূল্য সংযোজন করসহ (মূসক/ভ্যাটসহ) দাম নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি কেজি ১১৩ টাকা ৮৬ পয়সা, যা গত মাসে ছিল ১১৩ টাকা ৫৫ পয়সা। এই হিসাবে বিভিন্ন আকারের এলপিজি সিলিন্ডারের দাম নির্ধারিত হবে।

বাজারে সাড়ে ৫ কেজি থেকে শুরু করে ৪৫ কেজি পর্যন্ত বিভিন্ন আকারের সিলিন্ডার সরবরাহ করা হয়। গৃহস্থালি রান্নার পাশাপাশি রেস্তোরাঁ, পরিবহন, ছোট-বড় শিল্পকারখানায়ও এলপিজি ব্যবহার করা হচ্ছে। এই বাজারের ৯৯ শতাংশের বেশি বেসরকারি খাতের দখলে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত