Beta
শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪

সেই মাহমুদউল্লাহ এখন ‘অটোমেটিক চয়েস’

বিপিএলে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের প্রায় সবাই ব্যর্থ। ব্যাটে-বলে পারফরম্যান্স নেই বললেই চলে। ব্যতিক্রম শুধু মাহমুদউল্লাহ। অথচ গত ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে এই অলরাউন্ডারকে দলেই রাখতে চায়নি বিসিবি। শেষ মুহূর্তে তার ‘বদলি’ না থাকায় বিশ্বকাপ দলে ঢুকে যান। এখন সেই মাহমুদউল্লাহই ‘অটোমেটিক চয়েস’!

সবশেষ ম্যাচে ফরচুন বরিশালের হয়ে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে নিজের দ্রুততম হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন ২৩ বলে্। ছয় নম্বরে নেমে এই ব্যাটারের মতো এমন বিধ্বংসী ইনিংস বাংলাদেশি কোনও তরুণ ক্রিকেটারই খেলতে পারছেন না।

মাহমুদউল্লাহর অভাব পূরণ করার মতো কাউকে এখনও না পাওয়ায় বিসিবির কাছে এই ক্রিকেটার ‘অটোমেটিক চয়েস’। বুধবার মিরপুরে বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স প্রধান জালাল ইউনুস বলেছেন, “রিয়াদের অসাধারণ পারফরম্যান্স। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে (২০২২ সালে) যে জায়গাটায় তার স্ট্রাইক রেট ছিল, ওটার কারণেই তো টি-টোয়েন্টিতে সে এমনিতেই চলে আসে।” 

সঙ্গে যোগ করেছেন, “আর এখন তো সে প্রমাণ করছে, যে জায়গায় সে খেলছে, অটোমেটিক চয়েজ। এই মুহূর্তে সে চান্স পাবে কি পাবে না, এই প্রশ্নটা উঠছে না। এখন সে পারফরমার। আমি তো মনে করি এমনিতেই সে দলে থাকে। দ্বিতীয় চিন্তার অবকাশ নেই।”

২০২৩ বিশ্বকাপের আগে ৩৭ বছর পেরিয়ে গিয়েছিল মাহমুদউল্লাহ। তার বয়স নিয়েও আলোচনা হয়েছিল। কিন্তু এখন বিসিবি তার বয়সকে পাত্তাই দিচ্ছে না। জালাল ইউনুস উদাহরণ হিসেবে টেনেছেন ইংলিশ পেসার জেমস অ্যান্ডারসনকে, “বয়স কোনও ব্যাপার না। আপনি শারিরিকভাবে কতটা ফিট সেটা গুরুত্বপূর্ণ। অ্যান্ডারসন কিন্তু ৪১ বছর বয়সেও বোলিং করছে টেস্টে। কোনও খেলোয়াড় যদি নিজেকে ফিট রাখে, সে খেলতেই পারে। যদি পারফর্ম করে তাহলে তো তাকে টিমে রাখতে অসুবিধা নেই।”

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist