Beta
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪

পিএসজিতে ‘অনেক সমস্যা’ এমবাপ্পের

এমবাপ্পে-৭০

লুই এনিরকের দলে পুরো ৯০ মিনিট খেলা হচ্ছিল না কিলিয়ান এমবাপ্পের। হয় বেঞ্চে না হলে উঠে যেতে হচ্ছিল মাঠ থেকে। সময়ের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হয়েও বেঞ্চ গরম করায় নিশ্চয়ই কোচের ওপর ক্ষুব্ধ এমবাপ্পে? ফরাসি তারকা নিজেই দিয়েছেন জবাব। এনরিকের সঙ্গে তার কোনও ঝামেলা নেই। তবে পিএসজিতে ‘অনেক সমস্যা’ আছে বিশ্বকাপজয়ী ফরোয়ার্ডের।

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগে রিয়াল সোসিয়েদাদকে ২-১ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। ফরাসি ক্লাবটির কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিতের পথে জোড়া গোল করেছেন এমবাপ্পে। গত ১৪ ফেব্রুয়ারির পর সান সেবাস্তিয়েনের ম্যাচ দিয়ে প্রথমবার ৯০ মিনিট মাঠে ছিলেন তিনি। পুরোটা সময়ই মাঠে দাপট দেখিয়েছেন এই ফরোয়ার্ড।

এমবাপ্পের সামর্থ্য নিয়ে কারও সন্দেহ থাকার কথা নয়। মাঠে নামলেই উজ্জ্বল পারফরম্যান্সে মোহিত করেন ফুটবল বিশ্বকে। অথচ তাকেই বেঞ্চে বসিয়ে রাখছেন এনরিকে! তাহলে কি সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না কোচ-খেলোয়াড়ের? কানাল প্লাসকে এমবাপ্পে বলেছেন, “আমি সবসময় চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলতে চাই, এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট। আমি আড়ালে থাকা খেলোয়াড় নই। কোচের সঙ্গে আমার সম্পর্ক ভালো। তার সঙ্গে আমার কোনও ঝামেলা নেই।”

এনরিকের সঙ্গে সমস্যা না থাকলেও পিএসজির সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না এমবাপ্পের। সেটি জানিয়েও দিলেন এই ফরোয়ার্ড, “যদিও মানুষজন ভাবছে কোচের সঙ্গে আমার সমস্যা আছে, তবে তেমন কিছু নেই। আমার অনেক সমস্যা আছে (পিএসজির সঙ্গে), তবে কোচ এই ইস্যুর মধ্যে নেই।”

২০১৭ সালে মোনাকোর একাদশে জায়গা পাকাপোক্ত করার পর এমন দৃশ্য আর দেখতে হয়নি এমবাপ্পেকে। শুরুর একাদশের চেয়ে বদলি হয়ে বেশি নামতে হচ্ছে মাঠে! সোসিয়েদাদ ম্যাচের আগে তিন খেলায় এমবাপ্পের বেঞ্চে থাকার হিসাবটা এমন- দুই সপ্তাহ আগে নঁতের বিপক্ষে পিএসজির জেতা ২-০ গোলের ম্যাচে বেঞ্চ গরম করেছেন একঘণ্টার বেশি সময়। গত সপ্তাহে রেনের বিপক্ষে বেঞ্চে ছিলেন প্রায় আধাঘণ্টা। আর শুক্রবার মোনাকোর বিপক্ষে গোলশূন্য ড্রয়ে ৪৫ মিনিট বেঞ্চে ছিলেন এমবাপ্পে। এই তিন ম্যাচে তার এক গোল, পিএসজির এক জয় ও দুই ড্রয়ের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে অনেক বিতর্ক।

এমবাপ্পে সময়ের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। ‍পিএসজির মূল অস্ত্র। তারপরও তাকে মিনিটের পর মিনিট বসিয়ে রাখা হচ্ছে বেঞ্চে। কোচ এনরিকের সিদ্ধান্ত অবশ্য পরিষ্কার। ভবিষ্যতে এমবাপ্পেকে তিনি পাবেন না ধরে নিয়েই পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন। সোসিয়েদাদা ম্যাচের আগে স্প্যানিশ কোচ বলেছেন, “শিগগিরই আমাদের কিলিয়ানকে (এমবাপ্পে) ছাড়া খেলতে হবে, তাই আমাদের অভ্যস্ত হওয়া প্রয়োজন। দলের সেরা বিকল্প নিয়েই আমি কাজ করছি।”

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist