Beta
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
সমর্থকদের অনুরোধে নেমে করলেন হ্যাটট্রিক

বিনে পয়সায় রিয়ালে আসছেন এমবাপ্পে!

গতরাতে ফ্রেঞ্চ কাপে হ্যাটট্রিক করেছেন এমবাপ্পে। ছবি : টুইটার

রিয়ালে একটা পা দিয়েই রেখেছিলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। তাও একবার নয়, টানা দুই মৌসুমে। কিন্তু শেষ বেলার নাটকে থেকে গেছেন পিএসজিতেই। গত মৌসুমে তো পিএসজিতে খেলতে না চাওয়ায় ‘বোম্ব স্কোয়াডে’ পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল তাকে।

এবার আর নাটকীয় কোন বাঁক নয়। ‘ফুট মার্কেতো’ নিশ্চিত করেছে চুক্তি হয়ে গেছে দুই পক্ষের। সেই খবর ইউরাপের নির্ভরযোগ্য সব দৈনিকই প্রকাশ করেছে গুরুত্ব দিয়ে।

‘ফুট মার্কেতো’ জানিয়েছে, এই মৌসুমে পিএসজির সঙ্গে চুক্তি শেষ হওয়ার পরই রিয়ালে যোগ দিবেন এমবাপ্পে। চুক্তি না থাকায় কোন ট্রান্সফার ফি ছাড়া মাদ্রিদে আসবেন সময়ের অন্যতম সেরা এই তারকা। অথচ তাকে পেতে আল হিলাল গত মৌসুমে প্রস্তাব দিয়েছিল ২৫৯ মিলিয়ন পাউন্ডের।

পিএসজি বিনে পয়সায় ছাড়তে রাজি হলেও সাইনিং বোনাস হিসাবে ১০০ মিলিয়নের বেশি পেতে পারেন এমবাপ্পে। তবে তার বেতন আগের মত আকাশ ছোঁয়া হবে না বলে জানিয়েছে ফুট মার্কেতো। জানুয়ারিতে অন্য ক্লাবের সঙ্গে চুক্তির আলোচনার দরজা খুলেছিল এমবাপ্পের জন্য। সেই সুযোগটা নিয়ে রিয়াল নাকি সপ্তাহের শুরুতেই সেরে ফেলেছে নিজেদের কাজ।

এদিকে গতকাল ফ্রেঞ্চ কাপে রেভেলের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছেন এমবাপ্পে। ফ্রান্স ফুটবলের ষষ্ঠ স্তরের এই দলের বিপক্ষে পিএসজি জিতেছে ৯-০ গোলে। ফ্রেঞ্চ কাপের শেষ ৬৪-এর সেই ম্যাচে জোড়া গোল করেছেন রান্দাল কোলো মুয়ানি। একবার করে বল জালে পাঠিয়েছেন মার্কো আসেনসিও, গনসালো রামোস ও চের এনদুর। অপর গোলটি আত্মঘাতী।

গত মাসে ড্রতে প্রতিপক্ষ হিসেবে পিএসজিকে পাওয়ার পরই উল্লাসে মেতেছিল রেভেল। সেই ভিডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কেননা মাত্র ২০০০ দর্শক আসনের এই স্টেডিয়ামে পিএসজির মত দলের আসাটা তাদের জন্য বিশাল পাওনা। তবে  রেভেল অপেশাদার ক্লাব হওয়ায়  তাদের মাঠে খেলতে এমবাপ্পে আসবেন কিনা শঙ্কা ছিল তা নিয়ে।

এজন্য তাকে আসার অনুরোধ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও বার্তাও পাঠিয়েছিলেন অনেকে। সেই অনুরোধ রাখতে এসে হ্যাটট্রিকই করলেন এমবাপ্পে। পিএসজির হয়ে ফ্রেঞ্চ কাপে ২২ ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ৩০ গোল এখন তারই।

২০২২ সালে নিস আর ২০২৩ সালে মার্শেইয়ের কাছে হেরে ফ্রেঞ্চ কাপের শেষ ষোলো থেকে বিদায় নিয়েছিল পিএসজি। এবার শিরোপা জয়ই লক্ষ্য তাদের। আর সেটা হতে পারে এমবাপ্পের শেষ ফ্রেঞ্চ কাপও!

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist