Beta
সোমবার, ৪ মার্চ, ২০২৪

বিএনপি অফিস কালো কাপড়ে ঢাকার পরামর্শ কাদেরের

কাদের
ধানমণ্ডি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ওবায়দুল কাদের। ছবি : সকাল সন্ধ্যা

নেতৃত্বের ব্যর্থতার দায় নিয়ে বিএনপির কার্যালয় কালো কাপড় দিয়ে ঢেকে ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তার মতে, দলটির কর্মীদেরও উচিত নেতাদের বাড়িঘরও কালো কাপড়ে ঢেকে দেওয়া।

সোমবার আওয়ামী লীগের ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যে এসব কথা উঠে আসে।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রথম অধিবেশন। একই দিন কালো পতাকা মিছিলের ডাক দিয়েছে বিএনপি। অন্যদিকে শান্তি উন্নয়ন গণতন্ত্র সমাবেশ কর্মসূচি করবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের যাত্রা শুরুর প্রসঙ্গে টেনে নতুন সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, “নতুন সংসদের উদ্বোধনী দিনে যারা কালো পতাকা মিছিল করার কর্মসূচি দিয়েছে তাদের উচিত নেতৃত্বের ব্যর্থতার জন্য দলীয় অফিস কালো কাপড়ে ঢেকে ফেলা।”

কালো পতাকা কর্মসূচির মাধ্যমে বিএনপি আবারও সন্ত্রাস সহিংসতার জানান দিচ্ছে বলেও মনে করেন এই আওয়ামী লীগ নেতা।

তিনি বলেন, “এটি ষড়যন্ত্র। সন্ত্রাসের আভাস। আমরা কালো পতাকাবাহী অপশক্তিকে প্রতিহত করব।”

এসময় বিএনপির নেতাদের বাড়িও কালো কাপড়ে মুড়িয়ে দিতে দলটির নেতাকর্মীদের পরামর্শ দেন তিনি। বলেন, “নির্বাচনে অংশ না নিয়ে বিএনপি যে ভুল করেছে তার জন্য বিএনপিকেই পস্তাতে হবে।”

একটি দেশের সাংবিধানিক সরকারকে উৎখাতের শক্তি কারও নেই জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, “আগামীকাল দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রথম অধিবেশন বসবে। এ নির্বাচনে ৪১ শতাংশের বেশি ভোটার অংশগ্রহণ করেছেন। ২৮টি রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ ছিল।”

রাজনীতির ময়দানে কাউকে একবিন্দু ছাড় দেওয়া হবে না জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, “রাজপথের জবাব রাজপথেই দেওয়া হবে। আওয়ামী লীগ আগেও রাজপথে ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে।”

বিএনপি নতুন নতুন মিথ্যা তথ্য হাজির করছে দাবি করে তিনি বলেন, “আজকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। বিএনপির সর্বমোট ১০ হাজারের মতো কারাবন্দী আছে। অথচ তারা জাতিসংঘ কংগ্রেসম্যানদের কাছে বলছে ২৫ হাজার বিএনপি নেতাকর্মী জেলে আছে।”

নতুন সরকার কোন কোন বিষয়কে অগ্রাধিকার দেবে, এমন প্রসঙ্গেও কথা বলেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণসহ জনগণের সমস্যাগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিশেষ নজর দিচ্ছে সরকার।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist