Beta
সোমবার, ৪ মার্চ, ২০২৪

শেহবাজের সঙ্গে জারদারি-ভুট্টোর বৈঠক

শেহবাজ শরিফের (মাঝে) সঙ্গে বৈঠকে বিলাওয়াল ভুট্টো (ডানে) ও তার বাবা আসিফ আলি জারদারি। ছবি : রেডিও পাকিস্তান

পাকিস্তানে জাতীয় পরিষদ নির্বাচনের ফলাফলে সরকার গঠনের মতো একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি কোনও দল। ফলে সরকার গঠনের জন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে নিজেদের মধ্যে জোট বাঁধতে হবে অথবা সমর্থন নিতে হবে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের।

এমন পরিস্থিতিতে শুক্রবার রাতে লাহোরে বৈঠক করেছেন পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ও পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) শীর্ষ নেতারা।

রেডিও পাকিস্তানের এক প্রতিবেদনে বরাত দিয়ে দ্য ডন জানিয়েছে, পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো ও তার বাবা পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি শুক্রবার রাতে পিএমএল-এনের সভাপতি শেহবাজ শরিফের সঙ্গে বৈঠক করেন।

বৈঠকে তারা পাকিস্তানের আসন্ন সরকার গঠনের বিষয়ে নিজেদের মধ্যে মতবিনিময় করেন বলে রেডিও পাকিস্তানের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

তবে সরকার গঠনের জন্য নিজেদের মধ্যে জোট করা নিয়ে তাদের মধ্যে ঐকমত্য হয়েছে কি না সে বিষয়ে প্রতিবেদনে কিছু বলা হয়নি।

গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ নির্বাচনের ভোট হয়। একটি আসনে ভোট স্থগিত থাকায় ২৬৬টি আসনের মধ্যে ভোট হয় ২৬৫টি আসনে। এর মধ্যে শনিবার সকাল পর্যন্ত ২৫০টি আসনের ফল ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন।

ঘোষিত ফল অনুযায়ী, স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন ৯৯টি আসনে। পাকিস্তান মুসলিম লিগ (পিএমএল-এন) বিজয়ী হয়েছে ৭১টি আসনে। পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) জয় পেয়েছে ৫৩টি আসনে।

অন্য দলগুলোর মধ্যে মুত্তাহিদা কওমি আন্দোলন পাকিস্তান ১৭টি, পাকিস্তান মুসলিম লিগ ৩টি, ইসতেহকাম-ই-পাকিস্তান পার্টি ও জমিয়ত উলামা-ই-পাকিস্তান দুটি করে এবং মজলিস ওয়াহদাত-ই-মুসলিমিন পাকিস্তান, বেলুচিস্তান ন্যাশনাল পার্টি ও পাকিস্তান মুসলিম লিগ (জিয়া-উল-হক শহীদ) একটি করে আসনে বিজয়ী হয়েছে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist