Beta
শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪

রামুর সড়কে প্রাণ গেল স্কুল ছাত্রসহ ২ জনের

কক্সবাজারের রামুতে আলাদা দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন স্কুল ছাত্রসহ দুইজন। এতে আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা বাজার এবং রশিদনগর ইউনিয়নের পানিরছড়া মামুন মিয়া বাজার এলাকায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে। রামু হাইওয়ে ক্রসিং থানা পুলিশের ওসি মো. আজিজুল বারী ইবনে জলিল এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের পূর্ব নোনাছড়ি এলাকার আনোয়ার মিয়ার ছেলে শাহেদ রানা (১৪) এবং রশিদনগর ইউনিয়নের পূর্ব হামিরপাড়ার মোহাম্মদ বাবুলের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৮)। শাহেদ রানা জোয়ারিয়ানালা এম এইচ সাঁচি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র।

দুর্ঘটনায় আহত হন মোহাম্মদ আশরাফ ও আব্দুর রহমান। তারা দুইজনেই কক্সবাজারের স্থানীয় বাসিন্দা।

স্থানীয়দের বরাতে আজিজুল বারী জানান, দুর্ঘটনার দিন সকালে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার জন্য চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা বাজারে সড়কের পাশে অবস্থান করছিল শাহেদ রানা। এক পর্যায়ে কক্সবাজারমুখি হানিফ পরিবহনের একটি বাস তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়।

ওসি বলেন,“পরে গুরুতর আহত অবস্থায় মো. শাহেদ রানাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে স্থানীয়রা। এসময় হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

বাসটিসহ চালক পালিয়ে যাওয়ায় এখনও শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

একই দিনে রামুর রশিদনগর ইউনিয়নের পানিরছড়া মামুন মিয়া বাজার এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও মাহেন্দ্র গাড়ির মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষে হয়। এতে একজন নিহত এবং দুইজন আহত হয় বলে জানান রামু হাইওয়ে ক্রসিং থানার এ ওসি।

আজিজুল বারী বলেন, কক্সবাজারমুখি মারশা পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা মাহেন্দ্র গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাহেন্দ্র গাড়িটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু এবং দুইজন আহত হন।

হতাহতরা মাহেন্দ্র গাড়ীর যাত্রী ছিলেন। ঘটনার পরপরই মারশা পরিবহনের বাসের চালক ও সহকারি পালিয়ে গেলেও দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি দুটি পুলিশ জব্দ করেছে। নিহতদের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist