Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

২২ দিনে রেমিটেন্স এল ১৪১ কোটি ডলার

রেমিটেন্স প্রবাহ
প্রবাসী আয়ের প্রবাহে গতি এসেছে।

বিভিন্ন দেশ থেকে প্রবাসীদের পাঠানো আয় বা রেমিটেন্স চলতি মার্চ মাসের প্রথম ২২ দিনে এসেছে ১৪১ কোটি ৪৪ লাখ ৫০ হাজার (১.৪১ বিলিয়ন) ডলার।

রেমিটেন্সে প্রতি ডলারে ১০৯ টাকা ৫০ পয়সা দিচ্ছে ব্যাংকগুলো। এই হিসাবে টাকার অঙ্কে এই ২২ দিনে ১৫ হাজার ৪৮৮ কোটি টাকা পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। প্রতিদিনের গড় হিসাবে এসেছে ৭০৩ কোটি টাকা।

মাসের বাকি ৯ দিনে (২৩ থেকে ৩১ মার্চ) এই হারে এলেও মাস শেষে রেমিটেন্সের অঙ্ক ২ বিলিয়ন (২০০ কোটি) ডলারে গিয়ে ঠেকবে।

২০২৪ সালের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ২১১ কোটি ৩১ লাখ (২.১১ বিলিয়ন) ডলারের রেমিটেন্স পাঠায় প্রবাসীরা। ফেব্রুয়ারি মাসে তার চেয়েও বেশি ২১৬ কোটি ৬০ লাখ (২.১৬ বিলিয়ন) ডলার এসেছে, যা ছিল আট মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি।

ফেব্রুয়ারি মাসে গত বছরের ফেব্রুয়ারির চেয়ে ৩৯ শতাংশ বেশি রেমিটেন্স এসেছিল । ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে ১৫৬ কোটি ৪ লাখ (১.৫৬ বিলিয়ন) ডলার এসেছিল।

গত বছরের শেষ মাস ডিসেম্বরে এসেছিল প্রায় ২ বিলিয়ন (১৯৯ কোটি ১২ লাখ) ডলার। তার আগের দুই মাস অক্টোবর ও নভেম্বরেও বেশ ভালো রেমিটেন্স এসেছিল দেশে। অক্টোবরে এসেছিল ১৯৭ কোটি ৭৫ লাখ (১.৯৮ বিলিয়ন) ডলার; নভেম্বরে আসে ১৯৩ কোটি (১.৯৩ বিলিয়ন) ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংক রবিবার রেমিটেন্স প্রবাহের সাপ্তাহিক যে তথ্য প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা যায়, মার্চ মাসের ২২ দিনে ১৪১ কোটি ৪৪ লাখ ডলার রেমিটেন্সের মধ্যে রাষ্ট্রায়ত্ত ছয় বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ১৮ কোটি ২৫ লাখ ডলার। বিশেষায়িত কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ২ কোটি ১৫ লাখ ডলার।

বেসরকারি ৪৩ ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ১২০ কোটি ৪৮ লাখ ডলার। আর ৯টি বিদেশি ব্যাংক এনেছে ৫৭ লাখ ডলার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যে দেখা যায়, চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রথম আট মাসে (জুলাই-ফেব্রুয়ারি) ১৫ দশমিক শূন্য ৭ বিলিয়ন ডলার পাঠিয়েছে প্রবাসীরা, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ৭ দশমিক ৬১ শতাংশ বেশি।

২০২২-২৩ অর্থবছরে ২১ দশমিক ৬১ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স এসেছিল দেশে, যা ছিল আগের অর্থবছরের (২০২১-২২) চেয়ে ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ বেশি।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist