Beta
সোমবার, ২২ জুলাই, ২০২৪
Beta
সোমবার, ২২ জুলাই, ২০২৪

রোহিত-জাদেজার সেঞ্চুরি, সরফরাজের ‘বাজবল’

১১১১১১১১১১
Picture of ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

সর্বশেষ টেস্ট সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন গত বছর জুলাইয়ে। লাল বলে এরপর থেকেই ব্যর্থতার বৃত্তে রোহিত শর্মা। অবশেষে রাজকোট টেস্টে কাটল খরা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টেস্টের প্রথম দিন সেঞ্চুরি করলেন রোহিত।

নিজের ঘরের মাঠে সেঞ্চুরি পেয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজাও। ভারত দিন শেষ করেছে ৫ উইকেটে ৩২৬ রানে।

৩৩ রানে ভারতের ৩ উইকেট

রাজকোট টেস্টের শুরুতে দাপট ছিল ইংল্যান্ডের। অসম বাউন্সের উইকেটে ৩৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছিল স্বাগতিকরা। আগের ম্যাচের ডাবল সেঞ্চুরিয়ান যশস্বী জয়সওয়াল ১০, শুভমান গিল ০ ও রজত পাতিদার ফেরেন ৫ রানে। মার্ক উডের গতিতে কাঁপছিল ভারত।

২১ রানে স্লিপে জো রুট রোহিত শর্মার ক্যাচ না ফেললে ভারতের বিপদ বাড়ত আরও। জীবন পেয়ে রোহিত খেলতে থাকেন নিজের চেনা খেলাটা। চতুর্থ উইকেটে জাদেজার সঙ্গে গড়েন ২০৪ রানের জুটি। সেঞ্চুরির পর রোহিত শর্মা উদযাপন করেননি সেভাবে। শুধু ব্যাট তুলেছিলেন, খুলেননি হেলমেট। কারণ তিনি জানতেন, যেতে হবে বহুদূর।

রাজকোটে ঘরোয়া ক্রিকেটে জাদেজার গড় ১০০’র বেশি হওয়ায় নামানো হয়েছিল পাঁচে। সেই আস্থার প্রতিদানই দিয়েছেন তিনি। সেঞ্চুরির পর তিনিও ভাসেননি আবেগে।

কপিলের পাশে রোহিত

অধিনায়ক হিসেবে কপিল দেব টেস্টে সেঞ্চুরি করেছেন তিনটি। রোহিত শর্মাও অধিনায়ক হিসেবে করলেন তৃতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি। ভারতীয়দের মধ্যে অধিনায়ক হিসেবে সর্বোচ্চ ২০ সেঞ্চুরি বিরাট কোহলির। সুনীল গাভাস্কার ১১ ও মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন করেছেন ৯টি সেঞ্চুরি।

রোহিত শর্মার ১১টি সেঞ্চুরির কেবল ৩টি অধিনায়ক হিসেবে। ১৩১ রান করে উডের বলে শততম টেস্ট খেলা বেন স্টোকসকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন রোহিত। পুল করতে গিয়ে শর্ট মিডউইকেটে ধরা পড়েন তিনি। এই উডের বলেই একবার হেলমেটে আঘাত করেছিল তার।

১৯ মাস পর জাদেজার সেঞ্চুরি

রবীন্দ্র জাদেজা সর্বশেষ টেস্ট সেঞ্চুরি করেছিলেন ২০২২ সালের জুলাইয়ে। ১৯ মাস পর ঘরের মাঠে পেলেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ টেস্ট সেঞ্চুরি। দলের বিপদের সময় শক্ত হাতে হালটা ধরে অপরাজিত আছেন ১১০ রানে। ডানহাতি-বামহাতি কম্বিনেশন ধরে রাখতে পাঁচে পাঠানো হয় তাকে। সেই আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন জাদেজা।

সরফরাজের বাজবল

রাজকোটে প্রথম দিন আলাদাভাবে নজর কেড়েছেন টেস্ট অভিষিক্ত সরফরাজ খান। ইংল্যান্ডের চালু করা ‘বাজবল’ই খেলেছেন তিনি। প্রথম বলেই তাকে বাউন্সার দিয়ে স্বাগত জানিয়েছিলেন উড। সেটা সামলে খেলেছেন নিজের স্বাভাবিক খেলাটা।

সরফরাজের ফিফটির পর গ্যালারিতে তার স্ত্রী ও বাবা।

গ্যালারিতে বাবা-স্ত্রীর সামনে সরফরাজ আবেগি হননি মোটেও। ৪৮ বলেই পেয়ে যান ফিফটি, অভিষেকে ভারতীয় ব্যাটরদের মধ্যে যা দ্বিতীয় দ্রুততম।

৬৬ বলে ৯ বাউন্ডারি ১ ছক্কায় ৬২ রানে শিকার হন দূর্ভাগ্যজনক রানআউটের। জাদেজার ডাকে সাড়া দিয়ে সিঙ্গেল নিতে গিয়েছিলেন তিনি। জাদেজা ফিরিয়ে দিলে মিড অন থেকে উডের সরাসরি থ্রোতে রান আউট হন তিনি। সেঞ্চুরির সুবাস পেয়েও এভাবে ফেরায় হতাশায় ড্রেসিংরুমে ক্যাপ ছুড়ে মেরেছিলেন রোহিত শর্মা।

সরফরাজের সঙ্গে টেস্ট অভিষেক হয়েছে উইকেটরক্ষক ব্যাটার ধ্রুব জুরেলের। তবে প্রথম দিন ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি জুরেল। জাদেজা ১১০ ও নাইটওয়াচম্যান কুলদীপ যাদব ১ রান নিয়ে ব্যাট করতে নামবেন দ্বিতীয় দিন।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

No posts found
No posts found