Beta
শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪

রওশনদের সম্মেলনের তারিখ পরিবর্তন

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন রওশন এরশাদ। ছবি : সকাল সন্ধ্যা

রওশন এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টির (জাপা) একাংশ আগামী ২ মার্চ দলের জাতীয় সম্মেলন করার ঘোষণা দিয়েছিল। তবে শনিবার তারা জানিয়েছেন, ২ মার্চ নয়, এক সপ্তাহ পিছিয়ে ৯ মার্চ হবে তাদের সম্মেলন।

শনিবার ঢাকার গুলশানে রওশন এরশাদের বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রওশন এরশাদ নিজেই সম্মেলনের নতুন তারিখ জানান।

তিনি বলেন, “দায়িত্ব গ্রহণের পর আজ আমি পার্টির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এবং অন্যান্য স্তরের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেছি। বৈঠকে আমরা জাতীয় পার্টির দশম জাতীয় সম্মেলন প্রসঙ্গে আলোচনা করেছি।”

আগামী ২ মার্চ জাতীয় পার্টির দশম সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছিল জানিয়ে রওশন এরশাদ বলেন, “কিন্তু পবিত্র মাহে রমজানের পূর্বে রাজধানীতে নানা আনুষ্ঠানিকতা থাকায় ওই দিনে সম্মেলনের জন্য উপযুক্ত ভেন্যু না পাওয়ায় আমরা তারিখ পারিবর্তন করে ৯ মার্চ শনিবার জাতীয় পার্টির দশম জাতীয় সম্মেলনের দিন নির্ধারণ করেছি।”

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর জাতীয় পার্টিতে ক্ষোভ-বিক্ষোভের মধ্যে গত ২৮ জানুয়ারি দলটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন নিজেকে চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা দেন। দলের মহাসচিব করেন কাজী মামুনুর রশীদকে। পাশাপাশি দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে থাকা জিএম কাদের ও মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুকে তিনি অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানান।

এ প্রসঙ্গেও শনিবার সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন রওশন এরশাদ। জিএম কাদের ও তার অনুসারীদের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, “যে দলের লাখ লাখ নেতাকর্মী দক্ষতা ও যোগ্যতায় এখনও সরকার পরিচালনার স্বপ্ন দেখছে, সেই দলটির সাংগঠনিক অবস্থা কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে! পল্লীবন্ধু এরশাদের রেখে যাওয়া জাতীয় পার্টির জনপ্রিয়তায় চরম ধস নেমেছে। পার্টি থেকে পল্লীবন্ধুর নামটাও প্রায় মুছে ফেলা হয়েছে।”

রওশন বলেন, “পার্টির এই ক্রান্তিলগ্নে দেশের অগণিত এরশাদ-পাগল নেতাকর্মীর দাবির মুখে এক কঠিন পরিস্থিতে জাতীয় পার্টিকে রক্ষার জন্য আমি চেয়ারম্যানের দ্বায়িত্ব নিয়েছি।”

এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি সংবাদ সম্মেলন করে জাপার এই অংশের মহাসচিব কাজী মামুনুর রশীদ জানিয়েছিলেন, ২ মার্চ তারা দলের জাতীয় সম্মেলন করবেন।

তবে ওইদিন জিএম কাদেরের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টির আরেক অংশের মহাসচিব মজিবুল হক চুন্নু বলেছিলেন, সম্মেলন করা নিয়ে রওশন এরশাদদের ঘোষণার গুরুত্ব নেই, এ নিয়ে ভাবার সময়ও তাদের নেই।

সেদিন তিনি বলেছিলেন, “জাতীয় পার্টি জি এম কাদেরের নেতৃত্বে একতাবদ্ধ রয়েছে। কারা কোথায় কী করল, তা নিয়ে এত ভাবার সময় আমাদের নেই। আগেও বলেছি এগুলো ধুম্রজাল সৃষ্টির চেষ্টা। কিছু লোক, যারা জাতীয় পার্টির কোনও পর্যায়ের নেতা নয়, তারা মিলে এসব কাজ করছে। এদের এত গুরুত্ব নাই। মানুষ জানে জাতীয় পার্টি কারা।”

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist