Beta
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

ইস্ট বেঙ্গলে সানজিদার অনুপ্রেরণা মুন্না-আসলাম

মুন্না, আসলাম, রুমিদের ছবির সামনে সানজিদা আক্তার। সোমবার কলকাতায়, ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবে। ছবি: সংগৃহীত।

দীর্ঘ ১২ বছর পর সুপার কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ইস্ট বেঙ্গল ক্লাব। রবিবার ভূবনেশ্বরে ইতিহাস গড়ার ম্যাচে উড়িষ্যা এফসিকে হারায় শতবর্ষী কলকাতার দলটি। সেই উড়িষ্যার একটি নারী ক্লাব স্পোর্টস উড়িষ্যার বিপক্ষে মঙ্গলবার খেলবে সানজিদা আক্তারের ইস্ট বেঙ্গল।

ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর আড়াইটায়। কলকাতার ইস্ট বেঙ্গল মাঠে নামতে যেন মুখিয়ে আছেন বাংলাদেশের জাতীয় দলের উইঙ্গার সানজিদা।

ইস্ট বেঙ্গলের ফেসবুক পেজ জুড়ে শুধু সুপার কাপ জয়ের ছবি আর ভিডিও। ফুটবলারদের সংবর্ধনা জানাতে বিমানবন্দরে কিভাবে জড়ো হয়েছে সমর্থকেরা সেই ভিডিও রয়েছে ফেসবুক পেজে।

ইস্ট বেঙ্গলের ফেসবুক পেজে যখন লাল-হলুদ শিবিরের নতুন কীর্তির ছবিতে সয়লাব, সানজিদা তখন নিজের ফেসবুক পেজে দিলেন বাংলাদেশের থ্রি মাস্কেটিয়ার্স-প্রয়াত তারকা ফুটবলার মোনেম মুন্না, শেখ মোহাম্মদ আসলাম, রিজভী করিম রুমির ছবি।

ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবে টাঙানো রয়েছে বিদেশি ফুটবলারদের ছবি। একটা দেওয়ালে লেখা ‘ওভারসিস হিরোজ।’ যেখানে অনেক বিদেশির সঙ্গে উজ্জ্বল একই ফ্রেমে মুন্না, আসলাম ও রুমির বাঁধাই করা ছবি। ওই ছবিটির সামনে দাঁড়িয়ে নিজেও একটা ছবি তোলেন সানজিদা।

ইস্ট বেঙ্গলের জার্সিতে মাঠে নামার অপেক্ষায় সানজিদা। ছবি: সংগৃহীত।

মূলত ইস্ট বেঙ্গলে মুন্না ছিলেন মাঝমাঠের ব্রিগেডিয়ার। ১৯৯১ সালে ইস্ট বেঙ্গলের কোচ ছিলেন সৈয়দ নঈমুদ্দিন। সেই বছর মনোরঞ্জন ভট্টাচার্য ইস্ট বেঙ্গল ছেড়ে চলে যান মোহনবাগানে। স্টপারে তরুণ দে ও স্বরূপ দাসকে খেলানোর সিদ্ধান্ত নেন নঈমুদ্দিন। মুন্নার জায়গা হয়েছিল মাঝমাঠ। ১৯৯১ সালে ইস্ট বেঙ্গল যে সাফল্য পেয়েছিল সেটার অন্যতম কান্ডারি ছিলেন জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার মুন্না। সেবার ইস্ট বেঙ্গল জিতেছিল আইএফএ শিল্ড ও কলকাতা লিগ।

ইস্ট বেঙ্গলে সাফল্যের সেই নায়ক মুন্নার ছবি থেকে অনুপ্রেরণা নিতে চান সানজিদা। তাইতো ফেসবুকের পেজে লিখেছেন, “শেখ মোহাম্মদ আসলাম, প্রয়াত মুনেম মুন্না, গোলাম মোহাম্মদ গাউস, রিজভী করিম রুমি। বাংলাদেশ ফুটবলের আর্কাইভে কি ভারি নাম! শত বছরের ঐতিহ্যবাহী ক্লাব প্রাঙ্গণে আজ দেখলাম আমার দেশের সেই সকল হিরোদের ছবি। অগ্রজদের সম্মান ও ইষ্ট বেঙ্গলের আস্থার প্রতিদান দেওয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে।”

সানজিদার ১০ নম্বর জার্সি। ছবি: সংগৃহীত।

যদিও ৭ দলের ভারতীয় নারী লিগে খুব বেশি ভালো অবস্থানে নেই সানজিদার দল ইস্ট বেঙ্গল। ৬ ম্যাচে ১টাই জয়, ৩ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে। অবশ্য স্পোর্টস উড়িষ্যাও দুর্বল প্রতিপক্ষ।

৬ ম্যাচে ৫ হার ও ১ ড্রয়ে ১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে রয়েছে এই দলটি। লাল হলুদ জার্সিতে মাঠে নামতে মুখিয়ে রয়েছেন সানজিদা। সবকিছু ঠিক থাকলে মঙ্গলবার সানজিদার অভিষেক হচ্ছে ইস্ট বেঙ্গলে। সকাল সন্ধ্যাকে সোমবার সেই রোমাঞ্চের কথা বলছিলেন সানজিদা, “ কাল খেলব এটা ভেবে খুবই ভালো লাগছে আমার। যেহেতু হুগলিতে প্রস্তুতি ম্যাচে খেলে গোল পেয়েছি, চেষ্টা করবো কালও গোল পেতে।”

৬ ম্যাচে ৫ জয় ১ ড্রয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উড়িষ্যা এফসি।  

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist