Beta
সোমবার, ২০ মে, ২০২৪
Beta
সোমবার, ২০ মে, ২০২৪

সাকিবদের ঝড়ে বিপিএলে সর্বোচ্চ রান

সাকিব-৭১
Picture of ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে রান ওঠে না- এই অপবাদ নতুন নয়। তবে এই মাঠেই চার-ছক্কার ফুলঝুড়িতে মেতে উঠলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। এবারের বিপিএলে প্রথম ২০০ ছাড়ানো স্কোর দেখার সুযোগ হলো রংপুর রাইডার্সের ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সৌজন্যে।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে আক্ষরিক অর্থেই ঝড় তুলেছিলেন সাকিব আল হাসানরা। শুরু থেকেই তাদের আগ্রাসী ব্যাটিং। সবচেয়ে বেশি আক্রমণাত্মক ছিলেন জিমি নিশাম। এই কিউই ব্যাটারের তাণ্ডবে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ২১১ রান করেছে রংপুর। এবারের বিপিএলে এটাই সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। সব মিলিয়ে বিপিএলের সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর ২৩৯। কাকতালীয় ব্যাপার হলো, এই চট্টগ্রামের বিপক্ষেই স্কোরটা গড়েছিল রংপুর, ২০১৯ সালে।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনিংয়ে দুর্দান্ত জুটি পায় রংপুর। রনি তালুকদার ও রিজা হেনড্রিকস মিলে ৬.৫ ওভারে স্কোরবোর্ডে তোলেন ৬১ রান। রনি ১৭ বলে ২৪ রান করে আউট হলেও আগ্রাসী ক্রিকেট সচল রাখেন হেনড্রিকস ও তিনে নামা সাকিব। আগের ম্যাচের রানে ফেরা সাকিব আজও দারুণ শুরু পেয়েছিলেন। যদিও ইনিংস লম্বা করতে পারেননি, ১৬ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় খেলেন ২৭ রানের ইনিংস।

তার বিদায়ের কিছুক্ষণ পরই ফিরে যান হেনড্রিকস। দক্ষিণ আফ্রিকান ওপেনার ৪১ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় খেলেন ৫৮ রানের ইনিংস। তার চেয়েও বেশি ভয়ঙ্কর ছিলেন নিশাম। কিউই ব্যাটার ২৬ বলে করেছেন হাফসেঞ্চুরি। ৫ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৫১ রানে অপরাজিত ছিলেন নিশাম।

কম যাননি নুরুল হাসান সোহানও। রংপুর অধিনায়ক ২১ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় অপরাজিত ছিলেন ৩১ রানে।

রংপুর ব্যাটারের দাপটের দিনে চট্টগ্রামের সব বোলারই বাজে সময় পার করেছেন। তাদের মধ্যে সবচেয়ে সফল সালাউদ্দিন সাকিল, ২ ওভারে ১৫ রান দিয়ে পেয়েছেন ২ উইকেট। আর নিহাদউজ্জামান পেয়েছেন ১ উইকেট।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত