Beta
রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

সিরিজ জিততে বাংলাদেশের চাই ১৭৫

২৫ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন তাসকিন আহমেদ । ছবি : সৌজন্য
২৫ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন তাসকিন আহমেদ । ছবি : সৌজন্য
সিলেট থেকে
সিলেট থেকে

বাংলাদেশকে সামনে পেলেই বদলে যান কুশল মেন্ডিস। ঝড় তোলেন ব্যাটে। ব্যতিক্রম হয়নি সিলেটেও। এই ওপেনারের ৮৬ রানের ইনিংসে সিরিজ নির্ধারণী ‘ফাইনাল’-এ শ্রীলঙ্কা পেল ৭ উইকেটে ১৭৪ রানের পুঁজি। শনিবার (৯ মার্চ) সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথমবার সিরিজ জিততে বাংলাদেশকে করতে হবে ১৭৫।

কুশল মেন্ডিসের টি-টোয়েন্টিতে গড় যেখানে ২৫.০৬, সেখানে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৫৪! তার স্ট্রাইক রেট ১৩৫.৭২। বাংলাদেশের বিপক্ষে সেটা ১৬০.২৫। নাজমুল হোসেন শান্তদের বিপক্ষে কুশলের আগের ৭টি ইনিংস- ৫৩, ৭০, ৫৭, ১১, ৬০, ৫৯ ও ৩৬। সিলেটের শেষ ম্যাচে খেললেন ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৮৬ রানের ইনিংস।

তাসকিন আহমেদ ২৫ রানে ২টি আর রিশাদ হোসেন ৩৫ রানে নেন ২ উইকেট। একটি করে উইকেট শরিফুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমানের। শেষ বলে লিটনের ‘নো লুক’ থ্রোতে রানআউট হন দাসুন শানাকা, তাতে ১ রান কম পেয়েছে শ্রীলঙ্কা।

জয়াবর্ধনেকে ছাড়িয়ে কুশল

টি-টোয়েন্টিতে কুশলের আগের সেরা ছিল ৭৯। সিলেটে শরিফুল-মোস্তাফিজুর-তাসকিনদের স্বাচ্ছন্দ্যে সামলে করলেন ৫৫ বলে ৬ বাউন্ডারি ৬ ছক্কায় ৮৬ রান।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে কুশল এখন শ্রীলঙ্কার তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ছাড়িয়ে গেছেন কিংবদন্তি মাহেলা জয়াবর্ধনেকে। ৫৫ ম্যাচে জয়াবর্ধনের রান ১ হাজার ৪৯৩। সেখানে ৬৪ ম্যাচে কুশলের রান ১ হাজার ৫৫৪। তাসকিনের বল তুলে মারতে গিয়ে মিডউইকেটে সৌম্য সরকারকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি।

রান উৎসবের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কা করেছিল ৩ উইকেটে ২০৬। দ্বিতীয় ম্যাচের স্কোর ৫ উইকেটে ১৬৫।

রিভিউ হারিয়ে শুরু

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি মেডেন দিয়ে শুরু করেছিলেন শরিফুল। আজ শেষ ম্যাচেও তার প্রথম ওভারটা ছিল আগুন ঝরানো। আভিস্কা ফার্নান্ডোর জায়গায় খেলা ওপেনার ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার বিপক্ষে শেষ তিন বলেই করেছিলেন জোড়ালো এলবিডাব্লিউর আবেদন।

প্রথম দুটিতে না নিলেও ষষ্ঠ বলে রিভিউ নিলে দেখা যায় বল যাচ্ছিল স্টাম্পের ওপর দিয়ে। ওভারটিতে লঙ্কানরা নেয় ২ রান।

পাওয়ার প্লেতে ৪১/১

বাংলাদেশকে ব্রেক থ্রু এনে দেন তাসকিন। চতুর্থ ওভারে তার বল বৃত্তের ওপর দিয়ে তুলে মারতে গিয়ে মিডউইকেটে সৌম্যকে ক্যাচ দেন ধনাঞ্জয়া (৮ রান)।

শুরুর এই ধাক্কা কাটিয়ে পাওয়ার প্লে’র ৬ ওভারে ১ উইকেটে ৪১ রান করে শ্রীলঙ্কা। প্রথম দুই ম্যাচের মতো শান্ত এসময় ব্যবহার করেন চার বোলার। শরিফুল, তাসকিন, মোস্তাফিজরা বাউন্ডারি হজম করেছেন কয়েকটি আলগা বল করে।

তারপরও এই সিরিজে পাওয়ার প্লেতে সবচেয়ে কম রান দিয়েছে বাংলাদেশ। প্রথম দুই ম্যাচে এসময় সফরকারীদের স্কোর ছিল ৪৯/১ ও ৪৫/২।

রিশাদের প্রথম ওভারে উইকেট

অষ্টম ওভারে আক্রমণে এসেছিলেন রিশাদ হোসেন। তার দ্বিতীয় বলে কুশল মারেন ছয়। সেই ওভারেই উইকেটের দেখা পান এই লেগ স্পিনার। এক্সট্রা বাউন্সের বলটি ছক্কা মারতে গিয়ে লং অনে শরিফুলের হাতে ক্যাচ দেন কামিন্দু মেন্ডিস (১২ রান)। শেষ পর্যন্ত ৪ ওভারে ৩৫ রানে ২ উইকেট নেন রিশাদ।

খরুচে মোস্তাফিজ

প্রথম দুই ম্যাচেই সমান ৪২ রান করে দিয়েছেন মোস্তাফিজ। উইকেট ছিল একটি। শেষ ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় ওভারে এলোমেলো বোলিংয়ে তার খরচ ১৮ রান।

দ্বিতীয় বলে মোস্তাফিজের কাটারে বাউন্ডারি মারেন ভানিন্দু হাসারাঙ্গা। পঞ্চম বলটা ছিল স্লোয়ার। বুঝতে পেরে অন সাউড দিয়ে ছক্কা কুশলের। পরের শর্ট ওয়াইড বল উইকেটের পেছন দিয়ে বাউন্ডারি!

এই ওভারটা থেকেই রানের গতি বাড়াতে থাকে লঙ্কানরা। নিজের তৃতীয় ওভারে হাসারাঙ্গাকে (১৫) বাউন্ডারি লাইনে ফেরান শরিফুলের ক্যাচ বানিয়ে। সেই ওভারেও খরচ ১০ রান। সব মিলিয়ে ৪ ওভারে ৪৭ রানে তার উইকেট একটি।

মাশরাফি-মাহমুদউল্লাহ পর শান্ত

টানা তিন ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিং নিয়েছিলেন শান্ত। এর আগে তিন ম্যাচের সিরিজে ২০১৭ সালে নিউজিল্যান্ড সফরে মাশরাফি বিন মুর্তজা জিতেছিলেন টানা তিন টস। ২০২১ সালে দেশের মাটিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে মাহমুদউল্লাহর কীর্তিও ছিল টানা তিন টস জয়ের।

শেষ ৫ ওভারে ৩৯

১৫ ওভার শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ছিল ৪ উইকেটে ১৩৫। নেট রানরেট ৯। সেখান থেকে স্কোরটা ২০০ হওয়ার মঞ্চ তৈরি ছিল। তবে ডেথ ওভারে নিয়ন্ত্রণ ফিরে পান বাংলাদেশি বোলাররা। শেষ ৫ ওভারে তাদের খরচ ৩৯। মোস্তাফিজের শেষ ওভারেই আসে ১৪ রান।

অপরিবর্তিত বাংলাদেশ

প্রথম দুই ম্যাচের একাদশ নিয়েই খেলছে বাংলাদেশ। এ নিয়ে দ্বিতীয়বার তিন ম্যাচ সিরিজের সব ম্যাচে একই একাদশ নিয়ে খেলল বাংলাদেশ। প্রথমবার ২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তারা খেলেছিল অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে।

লঙ্কান দলে বদল তিনটি। চোট পাওয়া মাথিশা পাথিরানার জায়গায় একাদশে পেসার নুয়ান থুশারা। আর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা হাসারাঙ্গার জন্য বেঞ্চে বসেছেন দিলশান মাদুশঙ্কা। ওপেনার আভিস্কার জায়গায় খেলছেন ধনাঞ্জয়া।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist