Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪
Beta
রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪

থানচিতে পর্যটকদের ক্যাম্পে হানা, টাকা মোবাইল ছিনতাই

ভেলাখুম। ফাইল ছবি
ভেলাখুম। ফাইল ছবি
Picture of নুপা আলম, কক্সবাজার

নুপা আলম, কক্সবাজার

বান্দরবানের থানচিতে ক্যাম্পে হানা দিয়ে পর্যটকদের কাছ থেকে টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়েছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। এসময় সন্ত্রাসীরা পর্যটকদের কাছ থেকে ১ লাখ ৮১ হাজার টাকা ও ১৫টি মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।

রবিবার উপজেলার ভেলাখুম পর্যটন স্পটে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান পর্যটক অনিক মোদক।

তিনি জানান, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নাফাখুম পর্যটন স্পট ভ্রমণে যান দুই ভ্রমণ দলের ২২ জন সদস্য। তাদের মধ্যে নারীরাও ছিলেন। নাফাখুম ভ্রমণ শেষে ২৫ ফেব্রুয়ারি তারা ভেলাখুম স্পটে ক্যাম্পিং করেন। ওই দিন রাত সাড়ে ১০টার দিকে ৮ জনের একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী দল তাদের ক্যাম্পে হানা দেয়। সন্ত্রাসীরা তাদের সঙ্গে থাকা ১ লাখ ৮১ হাজার টাকা ও ১৫টি মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।

অনিক আরও বলেন, “সন্ত্রাসীদের যে দলটি তাদের টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়েছে তাদের কয়েকজনের পোশাক ছিল সেনাবাহিনীর মতো এবং ব্যাজে লিখা ছিল কেএনএফ।”

থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, এই ঘটনায় ভুক্তভোগীরা কার্যালয়ে এসে জানালে তাদেরকে থানায় যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

তবে যেখানে পর্যটকরা ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছে সেখানে যাওয়ার অনুমতিই নেই জানিয়ে থানচি থানার ওসি মো. জসিম উদ্দিন বলেন, “ইদানিং পাহাড়ে সন্ত্রাসীদের কার্যকলাপ বেড়েছে। পর্যটকদের নিরাপত্তার কথা ভেবে শুধুমাত্র রেমাক্রি খালের মুখ পর্যন্ত পর্যটক ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু নাফাখুম, আমিয়াকুম, ভেলাখুম যেতে প্রশাসন অনুমতি দেয় না। শুধু নির্বাচনের সময় এই দুর্গম এলাকাগুলোতে হেলিকপ্টারে করে প্রশাসনের লোকজন দায়িত্ব পালন করতে যান।”

তিনি যোগ করেন, “যেসব গাইড পর্যটকদের ওখানে নিয়ে গেছে তাদের বিরুদ্ধে এবং আমাদের অনুমতি ছাড়া অন্যায়ভাবে যারা সেখানে গেছেন তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

দুর্গম এলাকাগুলোতে ভ্রমণে পর্যটকদের নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত