Beta
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

শনিবার থেকে সেন্টমার্টিনে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ

প্রতীকী ছবি

মিয়ানমারে চলমান সংঘাতময় পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে নিরাপত্তাজনিত কারণে কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে আগামী শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) থেকে পর্যটকবাহী সব ধরনের জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন।

বুধবার রাতে টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী সকাল সন্ধ্যাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে বুধবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

আদনান চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে জেলা প্রশাসনসহ সীমান্ত সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের নিয়ে সভা হয়েছে। এতে সাধারণ মানুষসহ পর্যটকদের নিরাপত্তাজনিত কারণে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে পর্যটকবাহী সব ধরনের জাহাজ চলাচল আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রশাসনের এ নির্দেশনা সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে বলেও জানান ইউএনও।

মিয়ানমারে চলমান সংঘাতের মধ্যে গত কয়েকদিন ধরে ওপার থেকে একের পর এক গোলা এসে পড়ছে বান্দরবান ও কক্সবাজার সীমান্তের ভেতরে। তাতে দুজন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও কয়েকজন। পরিস্থিতি এমন যে সীমান্তের কয়েকশ পরিবারকে বাড়ি থেকে সরিয়ে আনতে হচ্ছে।

এছাড়া মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সংঘর্ষের জেরে এখন পর্যন্ত দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি), সেনাবাহিনী, পুলিশ, ইমিগ্রেশন সদস্য ও অন্যান্য সংস্থার ৩২৮ জন সদস্য সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। বিজিবি তাদেরকে সম্পূর্ণ নিরস্ত্রীকরণ করে নিরাপদ আশ্রয় এবং আহতদের চিকিৎসাসেবা দিয়ে যাচ্ছে।

এমন পরিস্থিতির মধ্যে বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী বুধবার বান্দরবানের সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে যান। পরে সেন্টমার্টিনগামী জাহাজে চলাচলকারী পর্যটকদের নিরাপত্তা নিয়ে গণমাধ্যমের কর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি পরিস্থিতি পর্যালাচনা করে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist