Beta
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফের খুন

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প। ছবি : সকাল সন্ধ্যা

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আবারও খুনের ঘটনা ঘটেছে। এবার হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন ৩৫ বছর বয়সী প্রতিবন্ধী এক যুবক।

রবিবার রাত ১০ টার দিকে ২০ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ওই যুবককে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

এপিবিএনের সহঅধিনায়ক পুলিশ সুপার মো. আরেফিন জুয়েল জানান, নিহত যুবকের নাম আসাদুল্লাহ (৩৫)। ২০ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মৃত ছিদ্দিকের ছেলে আসাদ শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী ছিলেন।

উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে খুনের ঘটনা নতুন নয়। সবশেষ গত ৫ ফেব্রুয়ারি ও ২৮ জানুয়ারিও দুটি খুনের ঘটনা ঘটে। পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, গত ছয় বছরে ক্যাম্পে ১৮৯ রোহিঙ্গা খুন হয়েছেন।

আরেফিন জুয়েল জানান, রাতে লাল পাহাড়ের পথ দিয়ে ১০-১৫ জন দুর্বৃত্তের একটি দল আসাদুল্লাহকে তার ঘর থেকে তুলে নিয়ে যায়। তাকে ক্যাম্পের নতুন ব্রিজের ওপর নিয়ে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও গুলি করে পালিয়ে যায় তারা।

খবর পেয়ে ক্যাম্পের দায়িত্বে থাকা এপিবিএন সদস্যরা উখিয়া থানাকে জানান। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এই হত্যার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্তে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সুপার জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, প্রতিপক্ষ গ্রুপের তথ্য আরেকটি সন্ত্রাসী গ্রুপকে সরবরাহের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি মোহাম্মদ জলিল নামে শরণার্থী শিবিরের এক ব্যক্তিকে মাথায় গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। অজ্ঞাত ১৫-২০ জন অস্ত্রধারী তিনজন রোহিঙ্গাকে অপহরণ করে পাহাড়ে নিয়ে যায়। তার মধ্যে জলিলকে মাথায় গুলি করে লাশ ফুটবল খেলার মাঠে ফেলে চলে যায় তারা।

এর আগে গত ২৮ জানুয়ারি রাতে অজ্ঞাত মুখোশধারীরা ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মো. ইয়াছিন (৩৫) নামের এক নৈশ প্রহরীকে হত্যা করে।

মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তচ্যুত ১৩ লাখের বেশি রোহিঙ্গা এ মুহূর্তে বাংলাদেশে রয়েছেন। এদের অধিকাংশেরই বাস কক্সবাজারে।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist