Beta
রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪

নিলয় শারিকের হ্যাটট্রিকে ঊষার বড় জয়

দিনের প্রথম খেলায় বাংলাদেশ স্পোর্টিং ক্লাবকে ৮-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে ঊষা। ছবি: সংগৃহীত।
দিনের প্রথম খেলায় বাংলাদেশ স্পোর্টিং ক্লাবকে ৮-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে ঊষা। ছবি: সংগৃহীত।

হাসান যুবায়ের নিলয় এবং মোহাম্মদ শারিকের হ্যাটট্রিকে বড় জয় পেয়েছে ঊষা ক্রীড়া চক্র। মঙ্গলবার মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম খেলায় বাংলাদেশ স্পোর্টিং ক্লাবকে ৮-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে ঊষা।

জয়ী দলের হাসান যুবায়ের নিলয় এবং পাকিস্তানী মোহাম্মদ শারিক ৩টি করে গোল করেন। এছাড়া ঊষার ভারতীয় অনিকেত গুরাভ জোড়া গোল করেন। বাংলাদেশ এসসির রাফিউল ইসলাম ও ভারতীয় প্রিন্স কুমার ১টি করে গোল করেন। ষষ্ঠ ম্যাচে ঊষার এটি চতুর্থ জয়। পঞ্চম ম্যাচে তৃতীয় হার বাংলাদেশ এসসির।

ম্যাচের দশম মিনিটে নিলয়ের ফিল্ড গোলে শুরুতে এগিয়ে যায় ঊষা (১-০)। ১৩ মিনিটে প্রিন্স কুমারের ফিল্ড গোলে সমতায় ফেরে বাংলাদেশ এসসি (১-১)।

হাসান যুবায়ের নিলয় এবং মোহাম্মদ শারিকের হ্যাটট্রিকে বড় জয় পেয়েছে ঊষা ক্রীড়া চক্র। ছবি: সংগৃহীত।

দ্বিতীয় কোয়ার্টারের ২০ মিনিটে আবারও গোল পেয়েছে ঊষা। অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ড নিলয়ের ফিল্ড গোলে ব্যবধান ২-১ করে দলটি। ২১ মিনিটে অনিকেত ফিল্ড গোল করলে ব্যবধান বেড়ে দাঁড়ায় ৩-১ এ। মিনিট পরেই আবার গোল উৎসব ঊষার। পেনাল্টি স্ট্রোক থেকে গোল করে নিজের হ্যাটট্রিকপূর্ণ করার পাশাপাশি ঊষাকে ৪-১ ব্যবধানে এগিয়ে নেন নিলয়। ২৫ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে ব্যবধান ৪-২ করেন বাংলাদেশ এসসির রাফিউল।

খেলার তৃতীয় কোয়ার্টারের ৩৮ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করেন ঊষার ভারতীয় মোহাম্মদ শারিক (৫-২)। চতুর্থ ও শেষ কোয়ার্টারের ৪৭ মিনিটে শারিক আবার পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করেন। ঊষা এগিয়ে যায় ৬-২ গোল ব্যবধানে। ৫৫ মিনিটে শারিকের পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে ব্যবধান আরো বাড়িয়ে নেন (৭-২)। ৫৯ মিনিটে ঊষার হয়ে ম্যাচের শেষ গোলটি করেন অনিকেত (৮-২)।

পুলিশের কাছে হার বীমার


দিনের অন্য ম্যাচে দারুণ এক জয় পেয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ স্পোর্টিং ক্লাব। মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে শেষ ম্যাচে সাধারণ বীমা কর্পোরেশন ক্লাবকে ৬-১ গোলে হারিয়েছে পুলিশ।

জয়ী দলের অধিনায়ক আব্দুল মালেক জোড়া গোল করেন। এছাড়া পুলিশের রেজাউল আহমেদ রাতুল, দুই ভারতীয় গুরজিৎ সিং ও দীপক প্যাটেল এবং পাকিস্তানের এহতেশাম আসলাম ১টি করে গোল করেন। সাধারণ বীমার হয়ে ভারতের আশু এক গোল শোধ দেন।


আজ খেলার শুরু থেকেই সাধারণ বীমার ওপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে পুলিশ। সপ্তম মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন গুরজিৎ সিং (১-০)।

নবম মিনিটে মালেকের ফিল্ড গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে (২-০)। এর মিনিট তিনেক পর আবারও গোলের উৎসব পুলিশের। ১২ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে রাতুল গোল করলে ৩-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথম কোয়ার্টার শেষ করে পুলিশ।


দ্বিতীয় কোয়ার্টারের ২৩ মিনিটে দীপকের ফিল্ড গোলে পুলিশ এগিয়ে যায় ৪-০ তে। এ সময় সাধারণ বীমার খেলোয়াড়রা পুলিশের বক্সে আক্রমণ চালালেও গোল তুলে নিতে পারেননি।

তৃতীয় কোয়ার্টারের ৪০ মিনিটে পাকিস্তানের এহতেশাম ফিল্ড গোল করে পুলিশকে ৫-০ তে এগিয়ে নেন। খেলার চতুর্থ ও শেষ কোয়ার্টারের ৫৬ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে আশুর গোলে ব্যবধান ৫-১ এ নামিয়ে আনে বীমা।

৫৮ মিনিটে ম্যাচের শেষ গোলটি আসে পুলিশের স্টিক থেকে। দলকে ৬-১ গোলে এগিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি ম্যাচে নিজের জোড়া গোল পূর্ণ করেন পুলিশের মালেক।

আরও পড়ুন

সর্বশেষ

ad

সর্বাধিক পঠিত

Add New Playlist